যশোর হোটেল শ্রমিক ইউনিয়ন শ্রমিকদের ত্রাণ ও রেশন কার্ডের আওতায় আনার আবেদন

হোটেল সেক্টরের শ্রমিকদের ত্রাণ ও রেশন কার্ডের আওতায় আনার জন্য আবেদন জানানো হয়েছে। বাংলাদেশ হোটেল রেস্টুরেন্ট মিষ্টি বেকারী শ্রমিক ইউনিয়ন যশোর জেলা প্রশাসকের কাছে এই আবেদন জানিয়েছে। গতকাল সোমবার সংগঠনটির জেলা শাখার পক্ষ থেকে এই আবেদন করা হয়েছে।
আবেদনে বলা হয়েছে, করোনার কারণে দীর্ঘ দিন ধরে কর্মহীন রয়েছেন হোটেল শ্রমিকরা। ফলে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। ‘কাজ নেই, বেতন নেই’ এই পদ্ধতিতে মালিকরা হোটেল শ্রমিকদের মজুরি দিয়ে থাকেন। এদিকে দেশে করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়লে সরকার সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে। এরপর থেকে হোটেল রেস্তোরা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় হোটেল শ্রমিকদের কাজও নেই, তার ফলে বেতনও নেই। করোনা ভাইরাসের কারণে গত ২৬ মার্চ থেকে সমস্ত হোটেল রেস্টুরেন্ট মিষ্টি বেকারী প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে।
এমন পরিস্থিতিতে সরকারের পক্ষ থেকে বেকার জনগোষ্ঠীর মধ্যে ত্রাণ ও রেশন সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে এই ত্রাণ ও রেশনের কার্ড বিতরণ প্রক্রিয়া চলছে। কিন্তু হোটের সেক্টরের শ্রমিকরা অনেক ক্ষেত্রে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নাগাল না পেয়ে তালিকাভুক্ত হতে পারছেন না। ফলে এসব শ্রমজীবী মানুষদের অনেকেই যারা এই ত্রাণ ও রেশন সহযোগিতা পাচ্ছেন না তারা চরম মানবেতর জীবনযাপন করছেন। এমন পরিস্থিতিতে শ্রমিক ইউনিয়নের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসকের কাছে সরাসরি ত্রাণ, আর্থিক প্রণোদনা ও রেশন কার্ড তালিকাভূক্তির আবেদন জানানো হয়েছে। -সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

শেয়ার