বিশেষ জরুরি সাধারণ সভার সিদ্ধান্ত যশোরে ডিজিটাল জামিন শুনানিতে অংশ নেবেন না আইনজীবীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর আদালতে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে জামিন শুনানিতে অংশ নিবেন না আইনজীবীরা। পূর্ব প্রস্তুতি না থাকায় ডিজিটিল এ পদ্ধতিতে বিচারকার্যে অংশ নিতে এখনও তারা প্রস্তুত নয়। সোমবার জেলা আইনজীবী সমিতির এক নম্বর ভাবন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত বিশেষ সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। ফলে যশোর আদালতে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহারে ভার্চুয়াল সিস্টেমে প্রথম দিন কোন জামিন শুনানি অনুষ্ঠিত হয়নি।
এ বিষয়ে জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এমএ গফুর বলেন, করোনা দুর্যোগের সময় মামলার জট কমাতে সরকার সময় উপযোগী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। কিন্তু সমিতির সদস্যরা তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারে এখনো অনেকটা পিছিয়ে আছে। ফলে ভার্চুয়াল উপস্থাপনের মাধ্যমে জরুরি জামিন শুনানিতে তারা অংশ নিচ্ছেন না।
তিনি আরও বলেন, এ বিষয়ে মোবাইল ফোনে আইনমন্ত্রী, হাইকোর্টের রেজিস্টার জেনারেল ও যশোরের জেলা জজকে অবগত করা হয়েছে। এ সময়ে যশোর আদালতে আইনজীবীরা আদালতে জামিনের দরখাস্ত করে আসবেন। বিচারক আইনজীবীর অনুপস্থিতিতে শুনানি করে যে আদেশ দিবেন সেটা গ্রহণ করা হবে এমন সিদ্ধান্ত নেয়ার পক্ষে জেলা আইনজীবী সমিতি।
জেলা আইনজীবী সমিতির সহসভাপতি গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলম বাচ্চু, কাজী ফরিদুল ইসলাম, আবু মোর্ত্তজা ছোট, শাহানুর আলম শাহীন, এমদাদুল হক প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেন, যশোরের অধিকাংশ আইনজীবী ভার্চুয়াল উপস্থাপনের মাধ্যমে শুনানির সম্পর্কে অবগত নয়। সমিতির এমনও সদস্য আছেন যারা মোবাইল ভালো ভাবে ব্যবহার করতে পারে না। সেখানে এন্ড্রয়েট ফোন আর ইন্টারনেট ব্যবহার তো তাদের কাছে স্বপ্ন। হঠাৎ করে কিভাবে তারা এ সিস্টেম বুঝবেন। সর্বপরি সরকারের উদ্যোগকে স্বাগত জানালেও বিষয়টি নিয়ে আইনজীবীদের অনেক প্রশিক্ষণের প্রয়োজন আছে বলে সর্বসম্মতিতে ভার্চুয়াল উপস্থাপনের মাধ্যমে জামিন শুনানি বয়কট করেছে জেলা আইনজীবী সমিতি।

শেয়ার