ঘুষের টাকাসহ আটক ঝিকরগাছার রেজিস্ট্রি অফিসের কর্মচারী রবিউলের বিরুদ্ধে চার্জশিট

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরের ঝিকরগাছার সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের আলোচিত সেই কর্মচারী রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে ঘুষের টাকাসহ আটকের ঘটনা মামলার চার্জশিট দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। আদালত ওই চার্জশিট গ্রহণ করেছে বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দুদকের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) সিরাজুল ইসলাম।
সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, মণিরামপুর উপজেলার মোহনপুর গ্রামের মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে রবিউল ইসলাম ঝিকরগাছা সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে অফিস সহকারী পদে চাকরি করেন। তিনি বর্তমানে যশোর শহরের শংকরপুরের এলাকায় বসবাস করেন। অফিসে তিনি ঘুষ ছাড়া কোন কাজ করেন না বলে মানুষের মুখে মুখে রয়েছে। জমির মূল্য ভেদে দলিল প্রতি তিনি ২ থেকে ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত ঘুষ গ্রহণ করেন। অফিস চলাকালীন প্রতিদিন বিকেল ৫টার পর দলিল লেখকদের কাছ থেকে তিনি দলিল গুণে এই টাকা নিয়ে থাকেন বলে দুদকের কাছে অভিযোগ আসে।
ফলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দুদক সমন্বিত যশোর জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো: নাজমুচ্ছায়াদাতের নেতৃত্বে একটি এনফোর্স টিম গত বছরের ১০ অক্টোবর ঝিকরগাছা সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে অভিযান চালায়। এ সময় অফিস সহকারী রবিউল ইসলামের টেবিলের ড্রয়ার এবং আলমারির ড্রয়ারে তল্লাশি চালিয়ে ১ লাখ ৭৫ হাজার ৩৯২ টাকা উদ্ধার করা হয়। এই টাকার মধ্যে ১ লাখ ৩৩ হাজার ২৭ টাকা ছিলো ঘুষের। বাকি টাকা সরকারি ফিসের। ওই অভিযানে অফিস সহকারী রবিউল ইসলামকে আটক করা হয়েছিল। এ ঘটনায় দুদকের উপ-পরিচালক নাজমুচ্ছয়াদাত বাদী হয়ে আটক রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে ঝিকরগাছা থানায় মামলা করেন। তদন্ত শেষে রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ায় তার বিরুদ্ধে আদালতে এই চার্জশিট দাখিল করা হয়।

শেয়ার