করোনাভাইরাস: স্ত্রী আক্রান্ত, কোয়ারেন্টিনে প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো

সমাজের কথা ডেস্ক॥ কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর স্ত্রী সোফি গ্রেগরি ট্রুডো নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

ট্রুডোর মধ্যে এখনও কোনো উপসর্গ দেখা না গেলেও তাকে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে রয়টার্স।

এক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে সম্প্রতি লন্ডনে গিয়েছিলেন সোফি গ্রেগরি ট্রুডো, সেখান থেকে ফেরার পর তার মধ্যে ফ্লুর মত উপসর্গ দেখা দেয় বলে এক টুইটে জানিয়েছিলেন ট্রুডো।

এরপর বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের এক বিবৃতিতে জানানো হয়, পরীক্ষায় সোফির করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়, “প্রধানমন্ত্রী ভালো আছেন, তার মধ্যে কোনো উপসর্গ নেই। তারপরও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে ডাক্তারের পরামর্শে তিনি ১৪ দিন আলাদা থাকবেন।”

কোয়ারেন্টিনে থাকলেও ট্রুডো তার দায়িত্ব পালন করে যাবেন এবং শুক্রবার জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন বলে জানানো হয়েছে ওই বিবৃতিতে।

ট্রুডোর স্ত্রীর সংক্রমণের মাত্রা তুলনামূলক কম, তাকেও অন্তত ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

এক টুইটে তিনি বলেছেন, ভাইরাসের কারণে কিছু ‘অস্বস্তিকর উপসর্গ’ দেখা দিলেও শিগগিরই তিনি ‘ফিরে’ আসবেন।

বিশ্বজুড়ে মহামারীর আকার পাওয়া নভেল করোনাভাইরাসে কানাডায় এ পর্যন্ত ১৪৫ জনের দেহে সংক্রমণ ধরা পড়েছে, মৃত্যু হয়েছে একজনের। দেশটির দশটি প্রদেশের মধ্যে সাতটিতেই এ ভাইরাস ইতোমধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, গত আড়াই মাসে এ ভাইরাস ছড়িয়েছে বিশ্বের ১১৮টি দেশ ও অঞ্চলে। এ ভাইরাসের প্রভাবে ফ্লুর মত উপসর্গ নিয়ে যে রোগ হচ্ছে, সেই কভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছে সোয়া লাখের বেশি মানুষ, মৃতের সংখ্যা ৪৬০০ ছাড়িয়ে গেছে।

শেয়ার