আফগানিস্তানে যুদ্ধাপরাধ তদন্তে সায় আইসিসি’র

সমাজের কথা ডেস্ক॥ আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্য বাহিনীর যুদ্ধাপরাধের তদন্ত চালানোর পক্ষে রায় দিয়েছে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি)।

যুদ্ধাপরাধ তদন্তে অস্বীকৃতির আগের অবস্থান বদল করে আইসিসি এ সিদ্ধান্ত জানাল। আইসিসি’র বিচার-পূর্ববর্তী এক নি¤œ আদালত গত বছর এপ্রিলে নেতৃস্থানীয় কৌঁসুলি ফাতোও বেনসৌদা’র করা আবেদন নাকচ করে দিয়েছিল।

বনসৌদা আফগানিস্তান যুদ্ধে জড়িত মার্কিন সেনা, আফগান সরকারি বাহিনী এবং তালেবান জঙ্গিসহ সব পক্ষের নৃশংসতার অভিযোগ তদন্ত করে দেখার আবেদন জানিয়েছিলেন।

কিন্তু এ ধরণের তদন্ত ‘ন্যায়বিচারের স্বার্থ রক্ষা’ করবে না- এমন যুক্তিতে আদালত ওই আবেদন খারিজ করে। তবে এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধেও আপিল করেছিলেন বনসৌদা।

তার বিশ্বাস ২০০৩ সালের মে মাস থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে আফগানিস্তানে তালেবান, সরকার এবং মার্কিন বাহিনীরও কার্যকলাপের তদন্ত শুরু করার ভিত্তি আছে।

আইসিসি তে ২০০৬ সাল থেকে আফগানিস্তানে যুদ্ধের প্রেক্ষপট প্রাথমিকভাবে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে কৌসুলি বনসৌদা ২০১৭ সাল থেকে আফগান যুদ্ধে অপরাধের অভিযোগের আনুষ্ঠানিক তদন্ত চাইছেন।

২০১৬ সালে আইসিসি’র একটি প্রতিবেদনেও বলা হয়েছে যে, আফগান যুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনী গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ পরিচালিত গোপন আটক কেন্দ্রগুলোতে নির্যাতন চালিয়েছে তা বিশ্বাস করার যৌক্তিক ভিত্তি আছে।

প্রতিবেদনে এও বলা হয়েছে যে আফগান সরকার এবং তালেবান যুদ্ধাপরাধ করেছে এটি বিশ্বাস করাও যুক্তিযুক্ত।

শেয়ার