হাসানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কর্মীসভা অনুষ্ঠিত
কেশবপুরের উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে ২৯ মার্চ নৌকা বিজয়ী করতে হবে : শাহীন চাকলাদার

কেশবপুরের উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে ২৯ মার্চ  নৌকা বিজয়ী করতে হবে : শাহীন চাকলাদারএস আর সাঈদ, কেশবপুর (যশোর) থেকে ॥ যশোর-৬ কেশবপুর সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার বলেছেন, কেশবপুর হচ্ছে স্বস্তি আর শান্তির জায়গা। স্বস্তি আর শান্তির জায়গাকে কাউকে অশান্ত করতে দেওয়া হবে না। কোনো সন্ত্রাস, কোনো মাদকের স্থান কেশবপুরে থাকবে না। কঠোর হাতে সন্ত্রাস দমন করা হবে, মাদক নির্মূল করা হবে। কেশবপুরের আওয়ামী লীগ আজ ঐক্যবদ্ধ। ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগ এখন অনেক বেশি শক্তিশালী। কেশবপুরে যে উন্নয়নের ধারা বিদ্যমান রয়েছে আগামী ২৯ মার্চ উপনির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে সেই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে।
কেশবপুরের হাসানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের কর্মীসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। হাসানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ওবায়দুর রহমান ওহাবের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম-আহ্বায়ক সিরাজুল ইসলামের সঞ্চালনায় হাসানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত কর্মীসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম রুহুল আমিন, সহসভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব কাজী রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক গাজী গোলাম মোস্তফা, পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, যশোর জেলা পরিষদের সদস্য সোহরাব হোসেন ও কেশবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইউপি সদস্য গৌতম রায়। আরো বক্তব্য রাখেন সাগরদাঁড়ী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান শাহাদাৎ হোসেন, মজিদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গাজী গোলাম সরোয়ার, হাসানপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগনেতা ওজিয়ার রহমান, শহিদুজ্জামান শাহীন, জি.এম. আলতাফ হোসেন, অধ্যক্ষ মশিউর রহমান, হাসানপুর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক সাদ্দাম হোসেন প্রমুখ।
অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এ.কে.এম খয়রাত হোসেন, সহ-সভাপতি আব্দুল খালেক, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আফজাল হোসেন, যশোর জেলা পরিষদের সদস্য আলহাজ্ব হাসান সাদেক, কেশবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট রফিকুল ইসলাম পিটু, যশোর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম, যশোর শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান বিপু, কেশবপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক ভাইস চেয়ারম্যান নাসিমা সাদেক, কোষাধ্যক্ষ স্বপন মুখার্জী, সাংগঠনিক সম্পাদক পৌর কাউন্সিলর শেখ এবাদত সিদ্দিক বিপুল, সাংগঠনিক সম্পাদক সাগরদাঁড়ী ইউপি চেয়ারম্যান কাজী মুস্তাফিজুল ইসলাম মুক্ত, যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি নিয়ামত উল্লাহ, সাবেক সভাপতি রওশন ইকবাল শাহী, সুফলাকাটি ইউপি চেয়ারম্যান মাস্টার আব্দুস সামাদ, ত্রিমোহিনী ইউপি চেয়ারম্যান আনিসুর রহমান আনিস, বিদ্যানন্দকাটি ইউপি চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন, গৌরীঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান এস এম হাবিবুর রহমান, সিনিয়র আওয়ামী লীগ নেতা সন্তোষ দাস ও আলতাফ হোসেন বিশ্বাস, উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক মফিজুর রহমান মফিজ, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক এস এম বাবর আলী, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক মহিবুর রশিদ, মহব্বত হোসেন, তুহিন পাড়, সদস্য শাহাদাৎ হোসেন, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি সৈয়দ নাহিদ হাসান, সাধারণ সম্পাদক রমেশ চন্দ্র দত্ত, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী রাবেয়া ইকবাল, সাধারণ সম্পাদিকা মমতাজ খাতুন, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভানেত্রী অধ্যাপিকা রেবা ভৌমিক, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ফিরোজা আক্তার নাহিদ, উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাজী আজাহারুল ইসলাম মানিক, সাতবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা আবু বক্কর সিদ্দিক, কেশবপুর সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আফছার উদ্দীন গাজী, বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ইব্রাহিম হোসেন, আমিন উদ্দীন, মিজানুর রহমান বাবু, লতিফুল কবির মনি, বিপুল ডাক্তার, কামরুজ্জামান কামাল, আব্দুর রহিম, হাবিবুর রহমান, হাফিজুর রহমান হাফিজ, যুবলীগ নেতা আবু হাসান প্রমুখ।

শেয়ার