যশোর ও ঝিনাইদহে দুই শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর ও ঝিনাইদহে অভিভাবকের উপরে অভিমান করে দুই শিক্ষার্থী বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার দিনগত গভীর রাতে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়।
মৃতরা হলেন, যশোর সদর উপজেলার পাগলাদাহ গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে ও শীলা রায় মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ শ্রেণির ছাত্র সজিব হোসেন (১৫) এবং ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার খালকোলা গ্রামের কৃষ্ণ পদ বিশ্বাসের মেয়ে ও স্থানীয় উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী বীথিকা বিশ্বাস (১৮)।
মৃত সজিব হোসেনের পিতা সিরাজুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যার সময় না পড়ে সজিব মোবাইল ফোন নিয়ে সময় কাটাচ্ছিল। এ সময় তাকে পড়ার জন্য বকা দেয়া হয়। এর কিছুক্ষণ পরে ছেলে বাড়িতে থাকা বিভিন্ন পোকা মারার বিষপান করে। রাতে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মধ্যরাতে চিকিৎসক সজিবকে মৃত ঘোষণা করেন।
অপরদিকে, মৃত বীথিকা বিশ্বাসের বড় ভাই প্রদীব বিশ্বাস জানান, স্থানীয় একটি ছেলের সাথে বীথিকার প্রেমজ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি মঙ্গলবার বিকালে পরিবারে জানাজানি হলে পরিবার থেকে বীথিকাকে শাসন করা হয়। পরে রাতে বীথিকা বিষপান করে। পরিবারের সদস্যরা বিষয়টি বুঝতে পেরে প্রথমে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে রাত ১১টার দিকে যশোর ২৫০শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে গভীর রাতে বীথিকার মৃত্যু হয়।
ওয়ার্ডের ইন্টার্নি চিকিৎসক তন্ময় সরকার বিষপানে দুই জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শেয়ার