সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা: উপাচার্যদের নিয়ে বসছে ইউজিসি

সমাজের কথা ডেস্ক॥ দেশের বড় পাঁচটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিন্ন সিদ্ধান্তে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার উদ্যোগ হোঁচট খাওয়ার প্রেক্ষাপটে সবগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে আবারও বৈঠকে বসছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)।

বুধবার বিকাল ৩টায় ইউজিসি মিলনায়তনে এই বৈঠক হবে।

ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক কাজী শহীদুল্লাহ এখনও আশা ছাড়ছেন না।

তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেছেন, অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয় সমন্বিত পদ্ধতিতে এগিয়ে যাওয়ার পক্ষে। সেক্ষেত্রে বুধবারের সভায় সবার মতামত নিয়ে মার্চের প্রথমার্ধের মধ্যেই একটি রূপরেখা দেওয়া সম্ভব হবে।

ইউজিসির সদস্য অধ্যাপক মুহাম্মদ আলমগীর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেছেন, “এই বৈঠক থেকে কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে ধারণা পাওয়া যাবে।”

গত ১১ ফেব্রুয়ারি সব উপাচার্যের সঙ্গে বৈঠক করেই ইউজিসি এবার থেকেই সমন্বিত পদ্ধতিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়েছিল।

এজন্য একটি খসড়া নীতিমালা তৈরি করে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পাঠানোর আগে ইউজিসির পক্ষ থেকে জানানোও হয়েছিল যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বুয়েটও এতে ‘রাজি’ হয়েছে।

কিন্তু ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও বুয়েট আগের মতোই আলাদা ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছে।

এই পরিস্থিতিতে এবার কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা আয়োজন করা হবে কি না, তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে ইউজিসির মধ্যেই।

ইউজিসির একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “শিক্ষার্থীদের চাহিদার প্রথম সারিতে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোই যদি কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষায় না আসে, তবে এই পরীক্ষার আয়োজন করে শিক্ষার্থী-অভিভাবকের হয়রানি থেকে রেহাই দেওয়া খুব একটা সম্ভব হবে না।

“বড় বড় বিশ্ববিদ্যালয়গুলো কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষায় না এলে শিক্ষার্থীদের ওইসব বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে। এতে কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা নিয়েও বিশেষ কোনো লাভ হবে না। এখন ইউজিসি চিন্তাভাবনা করে দেখছে আদৌ কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে কি না।”

শেয়ার