কবর থেকে অস্ত্র-গুলি উদ্ধার যশোরে আলোচিত সন্ত্রাসী জাহিদ শ্যোন এরেস্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরে আলোচিত অস্ত্র মামলায় আনোয়ার জাহিদ নামে এক সন্ত্রাসীকে শ্যোন এরেস্ট দেখানো হয়েছে। ২১ ফেব্রুয়ারি তাকে সন্দেহমূলক আটকের পর গতকাল মঙ্গলবার অস্ত্র মামলায় তদন্ত কর্মকর্তার আবেদনের প্রেক্ষিতে শ্যোন এরেস্ট দেখানো হয়। আসামি আনোয়ার জাহিদ মণিরামপুর উপজেলার বলিয়ানপুর গ্রামের মৃত আনোয়ার আলীর ছেলে।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, গত ২১ ফেব্রুয়ারি রাতে সদর উপজেলার সিরাজসিংগা গ্রামে অভিযান চালায় পুলিশ। এসময় ওই গ্রামের আব্দুল হক গাজী ও তার ছেলে আব্দুল হালিমকে আটক করা হয়। পরে তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাতেই পুলিশ বাড়ির পাশে কবর খুঁড়ে দুইটি পিস্তল, একটি ওয়ানস্যুটারগান, দুইটি পাইপগান, তিনটি ম্যাগজিন ও ৭২ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে। এসময় এঘটনায় পুলিশের দায়ের করা মামলায় আসামি আব্দুল হক গাজী আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করেন। তার দেয়া জবানবন্দিতে বলা হয়েছে, ওই অস্ত্র-গুলি আনোয়ার জাহিদ তাদের কাছে সরবরাহ করেছে। এর আগে ঘটনার দিন আসামিদের দেয়া তথ্যে আনোয়ার জাহিদকে পুলিশ আটক করে। পরে তাকে সন্দেহমূলক ৫৪ ধারায় আদালতে প্রেরণ করে। গতকাল মঙ্গলবার তদন্ত কর্মকর্তার আবেদনের প্রেক্ষিতে আনোয়ার জাহিদকে ওই অস্ত্র মামলায় শ্যোন এরেস্ট দেখানোর আদেশ দিয়েছেন বিচারক। বর্তমানে আনোয়ার জাহিদ জেলহাজতে আটক রয়েছেন। অপর একটি সূত্রে জানা গেছে, আনোয়ার জাহিদ দীর্ঘদিন ধরে অস্ত্র বেচাকেনার সাথে জড়িত। তার কাছে আরো অবৈধ অস্ত্র থাকতে পারে বলে বিভিন্ন সূত্রে জানতে পেরেছে পুলিশ। ফলে তাকে এই মামলায় শ্যোন এরেস্ট দেখিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে আনা হলে আরো অস্ত্র-গুলিসহ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া যাবে।

শেয়ার