সড়ক দুর্ঘটনায় যশোরের কম-টেক ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক নিহত, স্ত্রী আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোর শহরের কম-টেক ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সত্ত্বাধিকারী মোশারফ হোসেন (৪৭) সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। এঘটনায় নিহতের স্ত্রী যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স শাহানাজ পারভীন (৩৮) আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে যশোর-মাগুরা মহাসড়কের সীমাখালী ব্রিজের অদূরে একটি ট্রাক তাদের মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মাগুরা সদর উপজেলার ইসাদহ গ্রামের মৃত সোলাইমান মিয়ার ছেলে। বর্তমান যশোর শহরের ঘোপ নওয়াপাড়া রোডের একটি ভাড়া বাড়িতে বসবাস করতেন।
মৃতের স্বজন ফরহাদ হোসেন জানান, মঙ্গলবার দুপুর দুই টায় হাসপাতালে ডিউটি শেষে শাহানাজ পারভীন স্বামীর সাথে মোটরসাইকেল যোগে মাগুরায় শ্বশুর বাড়িতে যান। পরদিন বুধবার সকালে ওয়ার্ডে ডিউটি থাকায় রাতে খাওয়া দাওয়া শেষে মোটরসাইকেল যোগে তারা স্বামী-স্ত্রী যশোর ফিরছিলেন। পথিমধ্যে সীমাখালী ব্রিজের অদূরে পৌঁছালে তাদের মোটরসাইকেলে একটি ট্রাক ধাক্কা দেয়। এতে তারা দু’জন মোটরসাইকেল থেকে নিচে পড়ে গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে রাত ১২ টার দিকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে ডা. আহমেদ তারেক শামস্ জরুরি বিভাগে মোশারফ হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন ও শাহানাজ পারভীনকে মহিলা সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করেন।
আহমেদ তারেক শামস্ জানান, হাসপাতালে আনার আগেই মোশারফের মৃত্যু হয়েছে। তার বুকে প্রচন্ড আঘাত লাগায় তার মৃত্যু হতে পারে। আহত শাহানাজ পারভীনের অবস্থা আশংকাজনক। তার মাথার আঘাতটি গুরুতর।
সার্জারি বিশেষজ্ঞ ডা. আব্দুর রহিম মোড়ল জানান, সেবিকা শাহানাজ পারভীনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। মস্তিকে রক্তক্ষরণ হচ্ছে। বুধবার দুপুরে উন্নত চিকিৎসার জন্যে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

শেয়ার