কাশ্মীর নিয়ে এরদোয়ানের মন্তব্যে কড়া প্রতিক্রিয়া ভারতের

সমাজের কথা ডেস্ক॥ পাকিস্তান সফরে দেশটির প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়িপ এরদোয়ানের কাশ্মীর নিয়ে মন্তব্যের কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ভারত।
কাশ্মীরকে ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় অ্যাখ্যা দিয়ে তুর্কি প্রেসিডেন্টকে এ নিয়ে ‘নাক না গলাতেও’ আহ্বান জানিয়েছে তারা।
এরদোয়ানের পাকিস্তান সফরে আঙ্কারা ও ইসলামাবাদের মধ্যে হওয়া যৌথ ঘোষণায় কাশ্মীর প্রসঙ্গে থাকা সব বিষয়ও নয়াদিল্লি প্রত্যাখ্যান করেছে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।
“আমরা তুর্কি নেতৃত্বকে ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ না করার এবং পাকিস্তান থেকে ভারত ও এই অঞ্চলে ঢুকে পড়া সন্ত্রাসীদের মারাত্মক হুমকিসহ প্রকৃত পরিস্থিতি নিয়ে জানাশোনার আহ্বান জানাচ্ছি,” তুর্কি প্রেসিডেন্টের শুক্রবারের মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় জানান ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবিশ কুমার।
“তুরস্ক-পাকিস্তান যৌথ ঘোষণায় জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে যা যা এসেছে, সবই প্রত্যাখ্যান করছি আমরা। কেননা, এটি ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ,” বলেছেন তিনি।

এর আগে শুক্রবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠকে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট কাশ্মীর প্রসঙ্গে সবসময় ইসলামাবাদের পাশে থাকার ঘোষণা দেন।

পাকিস্তানের পার্লামেন্টে দেওয়া যৌথ ভাষণেও এরদোয়ান কাশ্মীর নিয়ে কথা বলেন।

“আমাদের কাশ্মীরি ভাইবোনরা দশকের পর দশক ধরে সমস্যার মধ্যে আছেন। সাম্প্রতিক সময়ে (ভারতের) একতরফা সিদ্ধান্তের কারণে এটি আরও তীব্র হয়েছে,” গত বছর ভারত সরকারের জম্মু ও কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসন কেড়ে নিয়ে সেখানে কেন্দ্রের শাসন জারির দিকে ইঙ্গিত করে বলেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

এরদোয়ান সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে দেওয়া ভাষণেও কাশ্মীর নিয়ে নয়া দিল্লির সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন।

ভারত সেসময়ও এরদোয়ানের অবস্থান নিয়ে আপত্তি জানিয়েছিল।

শেয়ার