অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী অভিষেককে বরণ করে নিল নড়াইলবাসী

নড়াইল প্রতিনিধি॥ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী ক্রিকেটার নড়াইলের কৃতী সন্তান অভিষেক দাস অরণ্যকে বরণ করে নিয়েছে নড়াইলবাসী। বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে নভোএয়ারের এক ফ্লাইটে যশোর বিমান বন্দরে এসে পৌঁছান অভিষেক দাস অরন্য। বিমান থেকে অভিষেক দাস অরণ্য নামার পর বাবা অসিত দাস, মা অরুনা দাসসহ পরিবারের লোকজন অভিষেককে মালা পড়িয়ে বরণ করে নেন। তারপর গাড়িতে করে যাত্রা নড়াইলের উদ্দেশ্যে। তাকে বরণ করতে নড়াইল শহর থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে নড়াইল-যশোর সড়কের গাবতলা এলাকায় হাজির হয় শতাধিক মোটরসাইকেল, মাইক্রোবাস ও প্রাইভেটকার নিয়ে আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু বান্ধবসহ অভিষেক প্রেমীরা। ওই স্থান থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা সহকারে তাকে বরণ করে দুপুর আড়াইটার দিকে নড়াইল শহরে এসে পৌঁছান। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষ করার পর জাতীয় ক্রিকেট ওয়ানডে দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্তজা এমপির বাড়িতে যান অভিষেক। এ সময় মাশরাফির মা হামিদা বেগম বলাকা ও বাবা গোলাম মোর্তজা স্বপন অভিষেককে আপন ছেলের মত ভালবাসা দিয়ে বরণ করে নেন। মাশরাফির মা বাবা তাকে মিষ্টি খাইয়ে দেন এবং অভিষেকসহ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী দলের জন্য দোয়া কামনা করেন ও শুভেচ্ছা জানান। পরে শোভাযাত্রাটি অভিষেককে নিয়ে তার বাড়ি শহরের বাধাঁঘাট এলাকায় যায় এবং ওইস্থানে তাকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। অভিষেক সবার ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে বলেন, আপনারা আমার জন্য আর্শিবাদ করবেন, আমি যেন এর থেকে ভাল কিছু অর্জন করতে পারি, বাংলাদেশকে ভাল কিছু উপহার দিতে পারি। বাংলাদেশের জন্য গৌরব অর্জন করার চেষ্টা করব সব সময়।
এ সময় মাশরাফি বিন মোর্তজার বাবা গোলাম মোর্তজা স্বপন, অভিষেক দাসের বাবা অসিত দাস, আওয়ামী লীগ নেতা ও পৌরসভার কাউন্সিলর শরিফুল আলম লিটু, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী গিয়াসউদ্দিন খান ডালু, ক্রিকেট কোচ সৈয়দ মঞ্জুর তহিদ তুহিন, আওয়ামী লীগ নেতা হাফিজ খান মিলন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চঞ্চল শাহারিয়ার মিম, সাধারণ সম্পাদক রকিবুজ্জামান পলাশ, স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার