লোহাগড়ায় স্কুল ছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনধি ॥ নড়াইলের লোহাগড়ায় দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে দীর্ঘদিন আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে আলামীন মোল্যা (২২) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (৩০ ডিসেম্বর) সকালে নড়াইল সদর হাসপাতালে ধর্ষিতার ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, স্থানীয় একটি স্কুলের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীকে গত ৩ ডিসেম্বর সন্ধ্যার দিকে মোটরসাইকেলে করে ছাত্রীকে তার বাড়ির সামনে থেকে তুলে নিয়ে নিয়ে যায় আলামীন মোল্যা। তারপর নিজ বাড়ি ইতনা গ্রামে নিয়ে বাড়িতে আটকে রেখে ওই ছাত্রীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। ওই ছাত্রী গত রবিবার ফোনে বিষয়টি তার মা-বাবাকে জানালে ছাত্রীর বাবা রবিবার (২৯ ডিসেম্বর) রাতে লোহাগড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পেয়ে লোহাগড়া থানা পুলিশ ইতনা গ্রামে আলামিনের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে আলামিনকে গ্রেফতার করে ও ছাত্রীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। ওই ছাত্রীর সাথে যুবকের প্রেমজ সম্পর্ক চলছিল বলে সূত্র জানায়।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই এনামুল এ বিষয়ে বলেন, ছাত্রীর পিতা বাদি হয়ে রবিবার লোহাগড়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং-২১। তিনি আরো জানান, সোমবার সকালে নড়াইল সদর হাসপাতালে ছাত্রীর ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন শেষে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। আলামীন মোল্যাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার