কালীগঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্র হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

নয়ন খন্দকার, কালীগঞ্জ॥ ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্র আল-আমিনকে নৃশংসভাবে হত্যার প্রতিবাদে এবং দোষীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার ও সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে সাওতুল হেরা তাহফিজুল কোরআন মাদ্রাসার ছাত্রবৃন্দের আয়োজনে শহরের মেইন বাসস্ট্যান্ডে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে রাজনৈতিক ও সামাজিক নেতৃবৃন্দ, ছাত্র, শিক্ষক, ইমাম, সুধীবৃন্দ ও শত শত এলাকাবাসী অংশগ্রহণ করেন।
মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম আশরাফ, জাতীয় ইমাম সমিতির সভাপতি মুফতি ফারুক নোমানী, হাফেজ ঐক্য কল্যাণ পরিষদের মুফতি নাইমূল হক, হাফেজ নাজির আহম্মদ, মাওলানা রুহুল আমিন, শিশু আল-আমিনের পিতা আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ।
বক্তারা অবিলম্বে মাদ্রাসা ছাত্র আল-আমিন হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন। মানববন্ধনে আল-আমিনের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
উল্লেখ্য আল-আমিন আড়পাড়া গ্রামের সাওতাল হেরা তাহফিজুল কোরআন মাদ্রাসার হেফজ শ্রেণির ছাত্র ছিল। গত ৩০ ডিসেম্বর রাতে বাড়ির পাশে ওয়াজ শুনতে গিয়ে নিখোঁজ হয় আল-আমিন। ৫দিন পর গত বুধবার (৪ ডিসেম্বর) দুপুরে আড়পাড়া গ্রামের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নানের ৫ম তলা বাড়ির পেছনের একটি কচু বাগান থেকে তার জবাই করা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
এদিকে আল-আমিন হত্যার ঘটনায় থানায় কোন মামলা হয়নি। তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হৃদয় ও সাব্বির নামের দুই কিশোরকে থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ।
কালীগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মতলেবুর রহমান জানান, হত্যাকা-ের ঘটনায় থানায় এখনো কোন মামলা হয়নি। বৃহস্পতিবার লাশের ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হৃদয় ও সাব্বির নামের দুই কিশোরকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারে র‌্যাব, পুলিশ ও পিবিআই যৌথভাবে কাজ করছে।

শেয়ার