যশোরের বাজারে পেঁয়াজের দাম দু’শ ছাড়িয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরের বাজারে পেঁয়াজের দাম দু’শ ছাড়িয়েছে। কোথাও কোথাও ২২০ টাকা পর্যন্ত উঠেছে দাম। অথচ দু’দিন আগেও প্রতিকেজি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছিল ১৪০ টাকায়। দু’দিনের ব্যবধানে হঠাৎ করে পেঁয়াজের দাম আরও বেড়ে যাওয়ায় ক্রেতাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে, দীর্ঘ বিরতির পর অবশেষে ভ্রাম্যমাণ আদালত পেঁয়াজের বাজারে অভিযান চালিয়েছে। অভিযানে যশোরের বাজারে অধিক মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রির সত্যতা পেয়েছে প্রশাসন। বৃহস্পতিবার অধিক মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রির অপরাধে শহরের কয়েকটি বাজারে অভিযান চালিয়ে ৩ ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এদিন পেঁয়াজের দাম আরেক দফা বৃদ্ধি সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট দৈনিক সমাজের কথায় সংবাদ প্রকাশ হয়।
সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ডা. কাজী নাজিব হাসানের নেতৃত্বে শহরের চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড বাজারে অভিযান চালানো হয়। এ সময় বাজারের গফুর স্টোরে কম দামে কেনা পেঁয়াজ অধিক মুনাফার লোভে ২শ’ টাকা কেজি দরে বিক্রির অপরাধে গফুর স্টোরের মালিক ব্যবসায়ী আব্দুল গফুরের বিরুদ্ধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে মামলা দেয়া হয়। পরে তাকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
এদিন বিকেল ৪ টার দিকে শহরের বড় বাজারের হাটখোলা রোড আলুপট্টির নিউ আমিন অ্যান্ড সন্স নামে একটি কাঁচামালের আড়তে অভিযান চালানো হয়। এ সময় সেখানেও কম দামে কেনা পেঁয়াজ কেজি প্রতি ১৯০ টাকা দরে বিক্রির অপরাধে আড়তদার আব্দুল হকের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে ৩ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
এর আগে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজী আতিকুর রহমানের নেতৃত্বে হাটখোলা রোডের রেজাউল অ্যান্ড সন্সে অভিযান চালানো হয়। একই অপরাধে আড়তদার রেজাউল ইসলামের বিরুদ্ধে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে মামলা দিয়ে ২ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
এ সময় জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর যশোর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো: ওয়ালিদ বিন হাবিব ও পেশকার শেখ জালাল উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।
অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি জানান, যশোরের অভয়নগরে এক কেজি পেঁয়াজ কিনতে হচ্ছে ২২০ টাকায়। গত মঙ্গলবার যে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে কেজি প্রতি ১৪০ টাকা, বুধবার তা বেড়ে হয়েছে ১৮০ টাকা। গতকাল বৃহস্পতিবার সেই পেঁয়াজ কিনতে হচ্ছে ২২০ টাকায়।
হঠাৎ করে উপজেলার সবগুলো বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ায় সাধারণ ক্রেতাদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা বাজার মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদার এবং মজুদদারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি করেছেন।
বৃহস্পতিবার সরেজমিনে উপজেলার প্রধান বাজার নওয়াপাড়াসহ কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা যায়, পেঁয়াজ কিনতে আসা ক্রেতারা বাজার মনিটরিং ব্যবস্থার বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। এব্যাপারে উপজেলার বুইকরা গ্রামের তৌফিক ইসলাম বলেন, বুধবার ১৮০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ কিনেছি, আজ বৃহস্পতিবার সেই পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ২২০ টাকায়। বাজারের অসংখ্য ক্রেতাদের অভিযোগ বাজার মনিটরিং ব্যবস্থা না থাকায় খুচরা ও পাইকারি ব্যবসায়ীরা তাদের খেয়াল খুশি মতো দাম হাকচ্ছেন। দ্রত সময়ের মধ্যে বাজার মনিটরিং ব্যবস্থা কার্যকর করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।

শেয়ার