পশ্চিমবঙ্গে বুলবুলে নিহত ৬

সমাজের কথা ডেস্ক॥ ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল যতটা আগ্রাসী হবে ভাবা হয়েছিল, ততটা না হলেও এর তা-বে ক্ষয়ক্ষতি খুব কমও হয়নি। এখন পর্যন্ত ৬ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে। প্রায় তিন লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া ছাড়াও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।
ঝড় নিয়ে উদ্বিগ্ন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে ফোন করে ক্ষয়ক্ষতি সামলাতে সব ধরনের সাহায্য করার আশ্বাস দিয়েছেন।
এর আগে রাজ্যটিতে ঘূর্ণিঝড় ফণীর তান্ডবের সময় একাধিক বার ফোন করলেও, মমতা কথা বলেননি বলে অভিযোগ করেছিলেন মোদী। এবার তা হয়নি। বুলবুলের ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে ফোনে সবিস্তার আলোচনা হয়েছে দুইজনের মধ্যে।

এনডিটিভি জানায়, মোদী নিজেই রোববার সকালে মমতাকে ফোন করে ঝড়ে তার রাজ্যের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানতে চান এবং সাহায্যের আশ্বাসও দেন।

পরে এক টুইটে মোদী লেখেন, “ঘূর্ণিঝড় এবং ভারি বৃষ্টির পর পূর্ব ভারতের একাধিক এলাকার পরিস্থিতি সম্পর্কে খোঁজ নিয়েছি। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তা-বে এই মুহূর্তে সেখানকার পরিস্থিতি কেমন তা নিয়ে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা হয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে তাকে সবরকম সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দিয়েছি। সকলে সুস্থ থাকুন, নিরাপদে থাকুন, এই কামনাই করি।”
বুলবুলের তা-বে গোটা রাজ্যে প্রাথমিকভাবে ১০ জনের মৃত্যুর খবর আসলেও সেগুলো খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সবক’টি মৃত্যু বুলবুলের কারণে কি না সেটিই জানার চেষ্টা চলছে। রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের মন্ত্রী জাভেদ খান ঝড়ে ৬ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন। এর মধ্যে চারজনের মৃত্যু হয়েছে উত্তর ২৪ পরগনায়, ১ জন করে দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং পূর্ব মেদিনীপুরে।

শেয়ার