যশোরে বেইজিং+২৫ পর্যালোচনা নাগরিক সমাজের সম্পৃক্তি সংলাপ অনুষ্ঠিত

যশোরে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের বিভাগীয় সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে জয়তী সোসাইটির হলরুমে ‘বেইজিং+২৫ পর্যালোচনা: নাগরিক সমাজের সম্পৃক্তি শীর্ষক সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। সংলাপে বক্তারা বলেন, পুরুষতান্ত্রিক প্রথার প্রবল আধিপত্যের কারণে নির্যাতনের মাত্রা বৃদ্ধি পাচ্ছে। পুরুষতান্ত্রিক মনোভাব শুধুমাত্র একজন পুরুষের মধ্যেই আছে এটা ঠিক নয়, পুরুষতান্ত্রিক মনোভাব নারীদের মধ্যেও দেখা যায়। তাই আমাদের সকলকেই পুরুষতান্ত্রিক মনোভাব পরিহার করতে হবে। যখন একটি শিশু জন্ম গ্রহণ করেন সে যদি ছেলে সন্তান হয় তাহলে সে পুরুষ হিসেবেই বড় হয়। আর সন্তানটি যদি মেয়ে হয় তখন সে নারী হিসেবেই বড় হয়।
বক্তরা আরো বলেন, বৈষম্য বাংলাদেশসহ সব দেশেই বিদ্যমান। স্থানভেদে বৈষম্যের ধরন ভিন্ন। এতো কিছুর পরও নারীদের সফলতা অনেক দূর এগিয়েছে। নারীর জীবনের অর্জন অনেক অনেক বেশি। সকল পেশায় এখন নারীরা পুরুষের সাথে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। চ্যালেঞ্জিং পেশায়ও নারীরা অংশগ্রহণ করছেন।
বিভাগীয় এই সংলাপ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের যশোর জেলা কমিটির সভাপতি আফরোজা শিরিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, যশোর জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক তন্দ্রা ভট্টাচার্য্য। অন্যান্যের মধ্যে রাখেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক উম্মে সালমা বেগম, আন্দোলন সম্পাদক রেখা সাহা, সদস্য হাবিবা শেফা, সুরধুনী সংগীত নিকেতনের সভাপতি হারুন অর রশীদ, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান মজনু, জয়তী সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক অর্চনা বিশ^াস, তির্যক যশোরের সাধারণ সম্পাদক দীপংকর দাস রতন, জনউদ্যোগের সাধারণ সম্পাদক শিখা বিশ^াস, দৈনিক ইত্তেফাকের স্টাফ রির্পোটার ফারাজী আহমেদ সাঈদ বুলবুল, প্রতিবন্ধী নারী শাহিদা খাতুন, সাংবাদিক তহমিনা বিশ^াস, শ্রমিক নারী বিউটি খাতুন, কৃষক নারী ও জেলা কমিটির সদস্য নাসরিন নাহার আশা।
সংলাপে উপস্থিত ছিলেন মহিলা পরিষদের কুষ্টিয়া ঝিনাইদ, মাগুরা, সাতক্ষীরা জেলা ও কুমারখালী সাংগঠনিক জেলা কমিটির প্রতিনিধিবৃন্দ। সংলাপ অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন মহিলা পরিষদ যশোর জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক ফারদীনা রহমান এ্যানি। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

শেয়ার