যশোরে কমটেক ডায়াগনস্টিক মালিকের বিরুদ্ধে অব্যাহত ষড়যন্ত্রের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরে কমটেক ডায়াগনস্টিক মালিক মোশাররফ ও তার বন্ধু এসআই সিহাবের ষড়যন্ত্রের হাত থেকে স্বামীসহ পরিবারের সদস্যদের রক্ষা করতে এবং সুবিচারের আশায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন রোদেলা ফার্মেসির সত্ত্বাধিকারী শারমিন আক্তার টুম্পা। রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে প্রেসক্লাব যশোরে তিনি সংবাদ সম্মেলন করেন। শারমিন আক্তার টুম্পা শহরের ঘোপ নওয়াপাড়া রোডে ইমান আলীর মেয়ে।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, জেনারেল হাসপাতালের সামনে আমাদের রোদেলা ফার্মেসিতে গত বছর সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়। কিন্তু পাশের কমটেক ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মালিক মোশাররফ সে সময় একটি সিসি ক্যামেরা চুরি করে নেন। পরে সেখানে নতুন করে সিসি ক্যামেরা লাগালে মোশাররফ বাধা দেন। কারণ হিসাবে তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, তাদের হাসপাতালে নারী কর্মচারী দিয়ে ও দালালের মাধ্যমে রোগী নিয়ে আসে এবং বিভিন্ন সময় ওই প্রতিষ্ঠানে নারী কর্মচারী দৃষ্টিকুটু আচারণ করেন। বিষয়টি সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে আমার স্বামী ও কর্মচারীরা ওই প্রতিষ্ঠানের অনৈতিক কার্যকালাপ দেখে ফেলেন। যে কারণে আমার স্বামী দোকানের ব্যবসা করতে না পারেন সে জন্য বিভিন্ন সময় তার পুলিশ বন্ধু সিহাবকে দিয়ে হুমকি প্রদানসহ দোকানের সামনে থেকে তুলে নিয়ে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করেন। টাকা দিতে না পারায় এসআই সিহাব পাঁচশ পিচ ইয়াবা দিয়ে মাদকের মামলায় গত বছর আদালতে চালান দেন। দীর্ঘ কারাভোগের পর চলতি বছরে জেলখানা থেকে ছাড়া পেলে কমটেক প্রতিষ্ঠানের মালিক আবারও ২৫ অক্টোবর আমার স্বামী রায়হান হোসেনকে দোকানের মধ্যে মারপিট করেন। এছাড়া পরিবারের অন্য সদস্যদের ক্ষতি করার পরিকল্পনা নিয়েছে। এমত অবস্থায় মোশাররফ ও তার বন্ধু এসআই সিহাবের ষড়যন্ত্রের হাত থেকে স্বামীসহ পরিবারের সদস্যদের রক্ষা করতে এবং সুবিচারের আশায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন তিনি। এ সময় তার সাথে ছিলেন দেবর শামীম হোসেন প্রমুখ।

শেয়ার