ফুলতলায় অস্ত্রগুলি ও ইয়াবাসহ দুই শীর্ষ সন্ত্রাসী আটক

ফুলতলা (খুলনা) প্রতিনিধি: জেলা গোয়েন্দা পুলিশ শুক্রবার দিবাগত রাতে ফুলতলার যুগ্নিপাশা কামাল উদ্দিন স্কুলের সামনে থেকে পূর্ব বাংলা কমিউনিস্ট পার্টির আঞ্চলিক নেতা ও তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী সৈয়দ জাহিদুল ইসলাম ওরফে রুবেল (২৮) এবং মাদক ব্যবসায়ী খন্দকার তারেকুজ্জামান ওরফে তারেককে (৩৮) আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ২টি বিদেশী ওয়ান স্যুটারগান, ৩ রাউন্ড গুলি ও ৮’শ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ জানায় খুলনা জেলা পুলিশের ওসি তোফায়েল আহমেদ, পরিদর্শক সেখ কনি মিয়া এবং এসআই মুক্ত রায় চৌধুরী পিপিএম’র নেতৃত্বে পুলিশ শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টায় যুগ্নিপাশা শেষ সীমানা কামাল উদ্দিন স্কুল এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় পূর্ব বাংলা কমিউনিস্ট পার্টির আঞ্চলিক নেতা ও জেলা পুলিশের তালিকাভুক্ত (নং-৫১) সন্ত্রাসী সৈয়দ জাহিদুল ইসলাম ওরফে রুবেল এবং মাদক ব্যবসায়ী খন্দকার তারেকুজ্জামান ওরফে তারেককে আটক ও তাদের কাছ থেকে ২টি বিদেশী ওয়ান স্যুটারগান, ৩ রাউন্ড গুলি ও ৮’শ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। তবে ঘটনাস্থল থেকে অপর দুই মাদক ও অস্ত্র ব্যবসায়ী পালিয়ে যায়।
পুলিশ জানায়, ফুলতলার দামোদর গ্রামের তোফায়েল আহমেদ ও বিউটি বেগমের পুত্র রুবেলের বিরুদ্ধে অভয়নগর থানায় আওয়ামীলীগ নেতা ওলিয়ার ও ব্যবসায়ী মিন্টুসহ ৩টি হত্যা মামলা, অস্ত্র আইনে ২টি এবং মাদক আইনে ২টি মামলা রয়েছে। তার বিরুদ্ধে ফুলতলা থানায় ৬ টি গ্রেফতারী পরোয়ানা রয়েছে। এছাড়া নড়াইলের নড়াগাতি এলাকার মৃতঃ খন্দকার আতিয়ার রহমানের পুত্র খন্দকার তারেকুজ্জামান ওরফে তারেকের বিরুদ্ধে নড়াগাতি থানায় অস্ত্র আইনে ২টি এবং মাদক আইনে ২টি মামলা রয়েছে। এ ব্যাপারে এসআই মুক্তরায় চৌধুরী পিপিএম বাদি হয়ে অস্ত্র ও মাদক আইনে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন। এদিকে আটককৃত রুবেল ও তারেককে আদালতে সোপর্দ করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫দিনের রিমান্ডের আবেদন জানানো হয়েছে।

শেয়ার