বিসিবির আশ্বাসে ক্রিকেটে অচলাবস্থার অবসান

সমাজের কথা ডেস্ক॥ বোর্ডের সঙ্গে বৈঠক শেষে আন্দোলন স্থগিত করে মাঠে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ক্রিকেটাররা। বুধবার বিসিবি কার্যালয়ে আলোচনা শেষে সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান। একই সঙ্গে শনিবার থেকে ক্রিকেটারদের মাঠে ফেরার কথাও জানিয়েছেন তিনি।
বুধবার রাত সাড়ে ৯টার পর শুরু হয় এই বৈঠক। গুলশান থেকে মিরপুরে অবস্থিত বিসিবি কার্যালয়ে বোর্ডের সঙ্গে এই আলোচনায় যোগ দিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, ইমরুল কায়েসদের মতো সিনিয়র ক্রিকেটাররা।
বুধবার সন্ধ্যায় গুলশানে সংবাদ সম্মেলন করেন ক্রিকেটাররা। সেখানে তাদের মুখপাত্র হিসেবে কথা বলেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মোস্তাফিজুর রহমান। ১৩ দফা দাবি পেশের পাশাপাশি তিনি জানিয়েছিলেন, বোর্ডের সঙ্গে আলোচনায় বসতে রাজি ক্রিকেটাররা। বুধবার বোর্ডে যাবেন তারা।
সংবাদ সম্মেলন শেষে নিজেদের মধ্যে আলোচনার পর বিসিবিতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন আন্দোলনে নামা ক্রিকেটাররা। রাত ৯টার দিকে গুলশান থেকে মিরপুরে অবস্থিত বিসিবি কার্যালয়ে পৌঁছান তামিম। এরপর একে একে ভেতরে যান সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, ইমরুল কায়েসরা।
বিসিবির সঙ্গে বৈঠকে অধিকাংশ দাবি পূরণের আশ্বাস পেয়ে ধর্মঘট স্থগিত করেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা।
বাংলাদেশের টি টোয়েন্টি ও টেস্ট দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান জানিয়েছেন, বোর্ডের প্রতিশ্রুতির ভিত্তিতে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা ভারত সফর সামনে রেখে ২৫ অক্টোবর ক্যাম্পে যোগ দেবেন। আর ঘরোয়া লিগের ক্রিকেটাররা মাঠে ফিরবেন শনিবার থেকে।
জাতীয় ক্রিকেট লিগের তৃতীয় রাউন্ড শুরু হওয়ার কথা ছিল বৃহস্পতিবার। দুই দিন পিছিয়ে সেটা এখন শুরু হবে শনিবার।

বৈঠক শেষে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘ক্রিকেটারদের দাবি মানার মতো। তাদের দাবি-দাওয়া পূরণ করা হবে। তাদের ভাতা, সম্মানী বাড়ানোর বিষয়ে আমরা কোনো কার্পণ্য করব না। এছাড়া অবকাঠামোগত যে সব সুযোগ-সুবিধার কথা ক্রিকেটাররা বলেছেন আমরা সে ব্যাপারেও পদক্ষেপ নেব।’
পাপনের বক্তব্যের পর সাকিব আল হাসান বলেন, ‘আজকে যে আলোচনা হয়েছে তাতে আমরা সন্তুষ্ট। তবে দাবিগুলো বাস্তবায়ন হওয়ার পরেই বোঝা যাবে আমরা কতটুকু সন্তুষ্ট হতে পারলাম।’

শেয়ার