মৃতদের নামে সংবাদ প্রকাশ করায় সমকাল সম্পাদক প্রকাশকের নামে মামলা, সমন জারি

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ দৈনিক সমকাল পত্রিকার প্রকাশক, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকসহ তিন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় সমন জারীর আদেশ দিয়েছেন বিচারক। রোববার মামলা দায়েরের পর সোমবার বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট গৌতম মল্লিক এ আদেশ দেন।
রোববার শহরের পুলিশ লাইন টালিখোলা এলাকার মৃত মহিদুল ইসলাম মকার ভাই সহিদুল ইসলাম ও একই এলাকায় সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত মনিরুল ইসলামের মা সুফিয়া বেগম বাদী হয়ে এ মামলা করেছিলেন।
আসামিরা হলেন, সমকালের প্রকাশক একে আজাদ, ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মুস্তাফিজ শফি ও প্রতিবেদক জয়নাল আবেদিন।
সহিদুল ইসলামের অভিযোগে জানা গেছে, গত ১ অক্টোবর সমকাল পত্রিকায় ‘যশোরে ফের আলোচনায় শাহীন চাকলাদার’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। এ সংবাদের ভিতরে অনৈতিক কর্মকা-ে একদল ক্যাডার উল্লেখ করে তার মৃত ভাই মহিদুল ইসলাম মকা পুরাতনকসবা এলাকায় বিভিন্ন অনৈতিক কর্মকান্ডের নেতৃত্ব দেয় বলে উল্লেখ করা হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে মহিদুল ইসলাম মকা এ সংবাদ প্রকাশের এক বছর আগে মারা গেছেন।
অপরদিকে, সুফিয়া বেগমের অভিযোগে জানা গেছে, সমকাল পত্রিকায় একই সংবাদে তার মৃত ছেলের নামে একই অভিযোগ করা হয়েছে। ২০১৮ সালের ১৩ মে সন্ত্রাসী হামলায় আহত হয়ে পরদিন মনিরুল মারা যায়। মনিরুল তরুণ লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলো।
আসামিরা পরিকল্পিতভাবে তাদের পরিবারের সামাজিক সম্মান ক্ষুন্ন করতে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন এ সংবাদ প্রকাশ করিয়েছেন। ফলে তারা আদালতে এ মামলা করেছেন। রোববার আদালতে অভিযোগ দাখিলের পর আদালত আদেশের জন্য সোমবার দিন ধার্য্য করেছিলেন। সোমবার আদালত প্রত্যেক আসামির বিরুদ্ধে সমন জারির আদেশ দেয়া হয়েছে।

শেয়ার