মালয়েশিয়ায় থেকে লাশ হয়ে ফিরলেন রাজগঞ্জের আহম্মদ আলী

রাজগঞ্জ (যশোর)প্রতিনিধি॥ মালয়েশিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত প্রবাসী আহম্মদ আলীকে (৩৮) নিজ গ্রাম মণিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জের জালালপুরে দাফন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল নয়টার সময় জালালপুর গ্রামে যশোর বিমানবন্দর থেকে অ্যাম্বুলেন্সে নিহত যুবকের মরদেহ বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। মরদেহ বাড়িতে পৌঁছানোর পর শত শত নারী পুরুষ তাকে এক নজর দেখার জন্য ভিড় জমান। এদিন জোহরবাদ নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবর স্থানে দাফন সম্পন্ন হয়।
উল্লেখ্য, গত ৫ অক্টোবর মালয়েশিয়ার জোহরবাদ শহরে বাইসাইকেলে নিজের জন্য ডাক্তার দেখাতে যাচ্ছিলেন তিনি। এ সময় পিছন থেকে আসা একটি ট্যাক্সি (প্রাইভেটকার) তাকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। দুর্ঘটনার কিছুক্ষণ পরই তার মৃত্যু হয়। আহম্মদ আলী মণিরামপুর উপজেলার রাজগঞ্জের জালালপুর গ্রামের কওছার আলী বিশ্বাসের ছেলে এবং দুই সন্তানের জনক।
নিহতের ভগ্নিপতি তোফাজ্জেল হোসেন জানান, আহম্মদ আলী ২০০৭ সালে জীবিকার তাগিদে মালয়েশিয়ায় পাড়ি দেন। সেই থেকে প্রায় ১২ বছর বিদেশের মাটিতে জীবন অতিবাহিত করেন। এর ভিতর তিন বার ছুটিতে বাড়িতে বেড়াতে এসেছেন। নিহত আহম্মদ আলীর নাহিদ হাসান রাজু (১৫) ও রাফি আহমেদ (২) নামে দুটি ছেলে সন্তান রয়েছেন।

শেয়ার