যশোরে বৃদ্ধের বিরুদ্ধে প্রথম শেণির ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদদক ॥ যশোর সদর উপজেলার মথুরাপুর গ্রামে প্রথম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা চালিয়েছে ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধ। টেলিভিশনের ভলিউম বাড়িয়ে দিয়ে তাকে এ ধর্ষণের চেষ্টা চালানো হয়।
অপরদিকে শহরতরীর শেখহাটিতে সাড়ে ৪ বছর বয়সের কন্যা শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চালিয়েছে চাঁন হোসেন নামে আরেক ট্রাকচালক। বুধবার বিকেলেই পুলিশ ওই ট্রাকচালককে আটক করেছে।
পুলিশ সূত্র মতে, গত ৫ অক্টোবর সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টার দিকে সদর উপজেলার কচুয়া গ্রামের আলেক মোল্যা (৬৫) ৭ বছর বয়সের এক প্রতিবেশি কন্যা শিশু ও স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্রীকে পান খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ডেকে নিয়ে যান। নিজ ঘরে নিয়ে টেলিভিশনের ভলিউমও বাড়িয়ে দেন। এরপর ওই বৃদ্ধ তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। ভয়ে শিশুটি চিৎকার করতে থাকে। এসময় ঘরের পাশ দিয়ে যাচ্ছিলো শিশুটির এক বোন (১০) ও আরেক চাচাতো ভাই। ওই শিশুর চিৎকার শুনে তারা বৃদ্ধের ঘরে গেলে আলেক মোল্যা সেখান থেকে সটকে পড়েন। পরে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় শিশুটির পরিবার গত মঙ্গলবার কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেছেন।
অপরদিকে, গত মঙ্গলবার দুপুরে শহরতলীর শেখহাটি বাবলাতলায় সাড়ে ৪ বছর বয়সের এক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা চালিয়েছেন চাঁন হোসেন (২২) নামে এক ট্রাকচালক। চাঁন হোসেন একই এলাকার নওশের আলী হাওলাদারের ছেলে। ওই শিশুটি তার প্রতিবেশীর কন্যা।
ঘটনার সময় ট্রাকচালকের ছোটভাই খেলা করতে করতে শিশু কন্যাকে তাদের বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে ট্রাকচালক চাঁন হোসেন শিশুটিকে ফুঁসলিয়ে তার ঘরে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালান। এ সময় শিশুটি কান্নাকাটি করলে তাকে ছেড়ে দেয় চাঁন। বাড়ি ফিরে শিশুটি তার পরিবারের লোকজনদের বিষয়টি জানায়। কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই জিয়াউর রহমান জানান, শিশুটির পরিবার এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করেছে। এরপর বুধবার বিকেলে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় অভিযুক্ত চাঁন হোসেনকে তিনি আটক করেন।

শেয়ার