সৌদি বাদশাহ সালমানের দেহরক্ষী গুলিতে নিহত

সমাজের কথা ডেস্ক॥ সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের দীর্ঘদিনের এক দেহরক্ষী বন্ধুর গুলিতে নিহত হয়েছেন।
শনিবার রাতে জেদ্দার একটি বাড়িতে ‘ব্যক্তিগত বিরোধের’ জের ধরে মেজর জেনারেল আবদুল আজিজ আল ফাগমকে ওই বন্ধু গুলি করে হত্যা করেন বলে দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের বরাতে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।
ঘটনার সময় ফাগম জেদ্দার আল শাতী এলাকায় অন্য আরেক বন্ধুর বাড়িতে ছিলেন। এই বাড়িটি গ্রীষ্মকালে বাদশাহ সালমান জেদ্দার যে প্রাসাদে অধিকাংশ সময় থাকেন তা থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে।

সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এসপিএ-তে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে পুলিশ জানিয়েছে, ফাগামের সঙ্গে মামদৌহ বিন মেশাল আল আলীর, যাকে তার বন্ধু বলে বর্ণনা করা হয়েছে, কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আলী বাইরে থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে এসে তাকে গুলি করেন।
ঘটনাস্থলে পুলিশ গুলিবর্ষণকারী আলীকে ঘেরাও করে ফেলার পরও সে আত্মসমর্পণ করতে অস্বীকার করে এবং পুলিশের গুলিতে নিহত হয়, বিবৃতিতে এমনটিই বলা হয়েছে।
গুলিতে আরেক সৌদি, এক ফিলিপিনো ও নিরাপত্তা বাহিনীর পাঁচ সদস্য আহত হয়েছেন বলে ওই বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।
গুরুতর আহত ফাগামকে হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু হয়। তিনি সৌদি আরবের মৃত সাবেক বাদশাহ আবদুল্লাহ বিন আবদুল আজিজেরও দেহরক্ষী ছিলেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে।

শেয়ার