সাতক্ষীরা রেঞ্জে কোস্টগার্ড ও বনদস্যুর মধ্যে গোলাগুলি, অস্ত্রসহ দু’জন আটক

সাতক্ষীরা ও শ্যামনগর প্রতিনিধি ॥ সাতক্ষীরা রেঞ্জে বনদস্যু ও কোস্টগার্ডের মধ্যে গুলিবিনিময় হয়েছে। এসময় দুই বনদসুকে গ্রেফতার করে কোস্টগার্ড। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় তিনটি বন্দুক, ২১ রাউন্ড গুলি। এসময় মুক্তিপণের দাবিতে বনদস্যু বাহিনীর হাতে জিম্মি থাকা ৩ জেলেকে মুক্ত করা হয়। শনিবার সুন্দরবনের আমতলীখাল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে ।
কোস্টগার্ডের মিডিয়া কর্মকর্তা হায়াত ইবনে সিদ্দিক জানান, সুন্দরবনের আমতলী খালে বনদস্যু জনাব বাহিনীর সদস্যরা ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এ সময় কোস্টগার্ডের সদস্যরা সেখানে অভিযান পরিচলনা করেন। কোস্টগার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে জলদস্যু বাহিনী কোস্টগার্ডের উপর গুলিবর্ষণ করে। কোস্টগার্ডও পাল্টা গুলিবর্ষণ করে। উভয়পক্ষের গোলাগুলির এক পর্যায়ে বনদস্যু জনাব বাহিনী পিছু হটে যায়।
কোস্টগার্ড সেখান থেকে অস্ত্র গুলিসহ জলদস্যু বাহিনীর সদস্য সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার টাউন শ্রীপুর গ্রামের মালেক ও খুলনা জেলার কয়রা উপজেলার পাথর খালি গ্রামের আব্দুল গাজীকে গ্রেফতার করে।
এ সময় মুক্তিপণের দাবিতে বনদস্যু বাহিনীর হাতে জিম্মি থাকা মুক্ত করা হয় আমিনুল গাজী, আবু সাঈদ গাজী, আজিবরকে মুক্ত করা হয় ।
শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাজমুল হুদা জানান, কোস্টগার্ডের হাতে আটক দুই বনদস্যু, উদ্ধার হওয়া ৩ জেলে, দুইটি দোনলা বন্দুক, একটি একনলা বন্দুক ও ২১ রাউন্ড গুলি থানায় জমা দিয়েছে কোস্টগার্ড।

শেয়ার