ক্রিকেটে ঘুরে দাঁড়ানোর বিশ্বাস সাকিবের

সমাজের কথা ডেস্ক॥ অনেক প্রত্যাশা নিয়ে বিশ্বকাপে গেলেও ইংল্যান্ড ও ওয়েলসের আসর কেটেছে হতাশায়। বিশ্বকাপের পর শ্রীলঙ্কা সফরেও হতাশা সঙ্গী হয়েছে বাংলাদেশের। ঘরের মাঠের ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে অবশ্য ছন্দে ফেরার ইঙ্গিত মিলেছে। টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের কণ্ঠে তাই খারাপ সময় কাটিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর আত্মবিশ্বাস। তরুণদের দক্ষতা উন্নয়নে বাংলাদেশের অসামান্য সাফল্যের স্বীকৃতি স্বরূপ ‘চ্যাম্পিয়ন অব স্কিল ডেভেলপমেন্ট ফর ইয়ুথ’ পুরস্কার পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কের ইউএন প্লাজার ইউনিসেফ ভবনের ল্যাবুইসে হলে জাতিসংঘ শিশু তহবিল (ইউনিসেফ) প্রদত্ত এই পুরস্কার গ্রহণ করেন প্রধানমন্ত্রী। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে কাজ করা সাকিব। সেখানেই তিনি বাংলাদেশের ক্রিকেট নিয়ে কথা বলেছেন। বাংলাদেশের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক বলেছেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি, বাংলাদেশ ভালো একটি দল। এই ধরনের দল কখনও কখনও একটা পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে যায়। আমরা এখন এই অবস্থানের মধ্যে রয়েছি।’ যদিও খারাপ সময় কাটিয়ে ওঠার আত্মবিশ্বাস সাকিবের কণ্ঠে, ‘খারাপ সময় কাটিয়ে উঠতে আমাদের বেশি দিন লাগবে না। আশা করছি আমরা আগের মতোই ভালো খেলতে শুরু করব।’ ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর এখন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নিচ্ছে বাংলাদেশ। ২০২০ সালের পর ২০২১ সালেও রয়েছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। যে কারণে বাংলাদেশের সামনের সিরিজগুলো হবে কুড়ি ওভারের ম্যাচ নির্ভর। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণের বিশ্ব আসরে ভালো করাই এখন মূল লক্ষ্য সাকিবের, ‘সামনে দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলব আমরা। সবাই দোয়া করবেন আমাদের জন্য। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, আমরা বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে পারব।’ বাসস

শেয়ার