ছাত্রদের সাথে খাবার খেয়ে মান যাচাই করলেন যবিপ্রবি উপাচার্য

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) হলের ডাইনিংয়ে আকস্মিক অভিযান চালিয়ে ছাত্রদের সাথে বসেই খাবার খেয়ে মান যাচাই করলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন। খাবারের মান খারাপ হওয়ায় সংশ্লিষ্টদের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি। একইসঙ্গে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে খাবারের মান উন্নত না হলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন। রোববার রাতে উপাচার্য এই আকস্মিক অভিযান চালান।
যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) জনসংযোগ কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শ্রেণি প্রতিনিধিদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপাচার্য মহোদয় এই আকস্মিক অভিযান চালান।
এর আগে শিক্ষা, গবেষণা ও সমসাময়িক বিষয় নিয়ে যবিপ্রবি’র ২৪টি বিভাগের সকল বর্ষের শ্রেণি প্রতিনিধিদের (ক্লাস রিপ্রেজেন্টেটিভ) সঙ্গে দ্বিতীয়বারের মতো মতবিনিময় সভা করেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন। গত ২২ সেপ্টেম্বর রোববার বিকেলে যবিপ্রবির বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব একাডেমিক ভবনের গ্যালারিতে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। মতবিনিময় সভায় তিনি শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সমস্যার কথা শোনেন এবং সমস্যার তাৎক্ষণিক সমাধান দেন।
মতবিনিময় সভায় শিক্ষা, গবেষণা ও সমসাময়িক বিষয় নিয়ে বিভিন্ন বিভাগের প্রায় ২৫ জন শ্রেণি প্রতিনিধি তাদের মতামত ব্যক্ত করেন।
অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, তোমাদের বিবেকবান, মুক্তমনা ও স্বাধীন চিন্তাধারা নিয়ে চলতে হবে এবং তা প্রকাশ করতে হবে। যারা এগুলো প্রকাশ না করতে পারে, তারা কখনো নিজের, জাতির ও সমাজের কোনো পরিবর্তন আনতে পারে না। তিনি বলেন, তোমরা যত বড় হবে, এ বিশ্ববিদ্যালয় তত বড় হবে। দেশ-বিদেশে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম ছড়িয়ে পড়বে।
শিক্ষার্থীদের আবাসিক হলে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে উল্লেখ করে অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, আবাসিক হলে প্রশাসনকে ক্ষমায়িত করা হয়েছে এবং শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরিয়ে আনা হয়েছে।
শিক্ষার্থীদের পরিবহন সমস্যার সমাধানে আরও দুটি গাড়ি কেনার প্রক্রিয়া চলছে উল্লেখ করে অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পরিবহনের জন্য গাড়ির স্বল্পতা রয়েছে। এ সমস্যা সমাধানের জন্য আরও দুটি বাস কেনা হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে পুরানো গাড়িগুলো পরিবর্তন করা হবে।
মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন যবিপ্রবির ডিন অধ্যাপক ড. মো. আনিছুর রহমান, অধ্যাপক শেখ মিজানুর রহমান, অধ্যাপক ড. মত্যৃঞ্জয় বিশ্বাস, জাফিরুল ইসলাম, কিশোর মজুমদার, আব্দুল্লাহ আল মামুন, প্রভোস্ট প্রকৌশলী ড. মো. আমজাদ হোসেন, ড. সেলিনা আক্তার, শিরিন আক্তার, রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. আহসান হাবীব প্রমুখ। এ ছাড়া ২৪টি বিভাগের সকল বর্ষের প্রায় শতাধিক শ্রেণি প্রতিনিধি মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার