কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

সমাজের কথা ডেস্ক॥ কুষ্টিয়া দৌলতপুরে মাদক মামলায় পাঁচ জনের যাবজ্জীবন কারাদ- দিয়েছে আদালত। রোববার কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক অরূপ কুমার গোস্বামী পাঁচ বছর আগের এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।
দণ্ডিতরা হলেন দৌলতপুর উপজেলার আতারপাড়া চিলমারি গ্রামের আহাম্মদ হাওলাদারের ছেলে আলমগীর (৩৫), আকরব আলীর ছেলে সেলিম উদ্দিন (৪০) জাহাঙ্গীর হাওলাদারের ছেলে আজিম উদ্দিন, মসলেম খাঁর ছেলে সাইফুল ও আজিজুল হাওলাদারের ছেলে সুফিয়ান।
রায় ঘোষণার সময় আসামিদের মধ্যে আলমগীর ও সেলিম আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বাকিরা জামিনে পলাতক রয়েছেন।
আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অনুপ কুমার নন্দী জানান, যাবজ্জীবনের পাশাপাশি আসামিদের ৫০ হাজার টাকা অর্থদ- অনাদায়ে আরও এক বছরের কারাদ- দেওয়া হয়েছে।
মামলার বিবরণে বলা হয়, ২০১৮ সালের ৫ জানুয়ারি সন্ধ্যায় ভারত বাংলাদেশ সীমান্তের চিলমারি গ্রাম থেকে ফেন্সিডিল পাচারকালে বিজিবির টহল দল পাচারকারীদের ধাওয়া করে।
ধাওয়া খেয়ে পালানের সময় পাচারকারীরা ৫০২ বোতল ফেন্সিডিল ফেলে যায়। পরে স্থানীয়দের দেওয়া তথ্যে পাঁচ আসামিকে চিহ্নিত করেন বিজির সদস্যরা।
পরে ওই পাঁচজনের নামে ৪৭-বিজিবির সি কোম্পানির নায়েব সুবেদার গোলাম কাওসার মাদক মামলা করে তাদের দৌলতপুর থানায় হস্তান্তর করেন।
তদন্ত শেষে পুলিশ ২০১৮ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি ওই পাঁচজনের নামে আদালতে অভিযোপত্র দিলে এ মামলার বিচারকাজ শুরু হয়।

শেয়ার