কুষ্টিয়ায় সাবেক স্ত্রীকে অপহরণের মামলায় স্বামীর যাবজ্জীবন

সমাজের কথা ডেস্ক॥ কুষ্টিয়ায় সাবেক স্ত্রীকে অপহরণের মামলায় একজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত।

রোববার কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মুন্সী মো. মশিয়ার রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

এছাড়া এ মামলায় দুইজনকে ১৭ বছর ও চারজনকে ১৪ বছরের কারাদ- দিয়েছে আদালত।

আসামিরা হলেন সিরাজগঞ্জ জেলার সাহাজাদপুর থানার বনগ্রামের মকছেদ আলী প্রামাণিকের ছেলে মজিবুর রহমান প্রামাণিক।

এ মামলায় পাবনা জেলার মসজিদ ব্র্যাক এলাকার সোনা মিয়ার ছেলে আক্তার হোসেন ও পাবনা সদর উপজেলার খোদাইরপুর খলিফাপাড়া এলাকার আবুল কাশেমের ছেলে মনিরুল ইসলামকে ১৭ বছরের কারাদ- দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া পাবনা সদর উপজেলার নতুন বাঙ্গাবাড়ীয়া এলাকার ইয়াসিন আলী প্রামাণিকের ছেলে মনিরুল ইসলাম রানা ও ইসরাইল সরদারের ছেলে সোহাগ সরদার, মালিগাছা মধ্যপাড়া গ্রামের আব্দুল মান্নান সরদারের ছেলে আশরাফুল ইসলাম, একই গ্রামের আফাই মোল্লার ছেলে রনি হোসেনকে ১৪ বছরের কারাদ- দেওয়া হয়।

মামলার বিবরণে বলা হয়, ২০১৭ সালের ২৯ মার্চ কুষ্টিয়া শহরের মোল্লাতেঘরিয়া থেকে আসমাউল হুসনা কবিতাকে অপহরণ করে নেওয়ার সময় ভেড়ামারার লালনশাহ সেতুর টোলপ্লাজায় পুলিশ আসামিদের গ্রেপ্তার করে।

এ ঘটনায় কবিতা নয়জনের নাম উল্লেখ করে কুষ্টিয়া মডেল থানায় একটি মামলা করেন।

তদন্ত শেষে পুলিশ একই বছরের ৩০ এপ্রিল অভিযোগপত্র জমা দিলে এ মামলার বিচারকাজ শুরু করে আদালত।

SHARE