যশোরে ভুয়া এএসপি রাকেশসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরে এএসপি পরিচয়দানকারী প্রতারক রাকেশ কুমার ঘোষসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ। মামলার তদন্ত শেষে কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই নুর ইসলাম আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন। প্রতারক রাকেশ কুমার ঘোষ চৌগাছা উপজেলার বহিলাপোতা গ্রামের সন্তোষ কুমার ঘোষের ছেলে। তিনি যশোর শহরের ঘোপ জেল রোডের একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। চার্জশিটে অভিযুক্ত অপর দু’জন হলো, কেশবপুর উপজেলার শানতলা গ্রামের নুর মোহাম্মদ গাজীর ছেলে নাজমুল ইসলাম নয়ন এবং বাঘারপাড়া উপজেলার আন্দুলবাড়িয়া গ্রামের রেজাউল ইসলামের ছেলে শামীম রেজা।
জানা গেছে, প্রতারক রাকেশ কুমার ঘোষ নিজেকে এএসপি পরিচয় দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছিলেন। এমনকি বেশ কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তাকে এএসপি পরিচয় দিয়ে মোবাইলে ফোন করে তদবির করতেন। বিষয়টি জানার পর গত ৪ জুলাই বিকেল ৩ টার দিকে কোতোয়ালি থানার এসআই আমিরুজ্জামান শহরের কালেক্টরেট ক্যান্টিনের সামনে থেকে তাকে আটক করেন। এরপরে তার ঘোপের বাসায় তল্লাশি করে পুলিশের একটি নকল আইডি কার্ড, পুলিশের পোশাক পরিহিত একটি ছবি, র‌্যাংক ব্যাজ ৪টি, পুলিশ লেখা ব্যাজ দুটি ও পুলিশ লেখা একটি ব্যাগ উদ্ধার করা হয়।
এছাড়া ওইদিন শহরের ঘোপে অভিযান চালিয়ে প্রতারক রাকেশ কুমার ঘোষের সহযোগী নাজমুল ইসলাম নয়নকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় আটক দু’জন ছাড়াও শামীম রেজা নামে আরেক জনকে আসামি দিয়ে কোতোয়ালি থানায় মামলা করা হয়। কিন্তু এ মামলার এজাহারভুক্ত আসামি শামীম রেজাকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। মামলাটি প্রথমে এসআই সাহিদুল আলম এবং পরে এসআই নুর ইসলাম তদন্ত করেন। তদন্ত শেষে ওই ৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করা হয়।

শেয়ার