মাগুরার আদালতে আ’লীগ নেতাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমুলক মামলা!

শালিখা (মাগুরা) প্রতিনিধি ॥ মাগুরা সদর উপজেলার বেরইল পলিতা ইউনিয়নের ৩জন আওয়ামীলীগ নেতাসহ কয়েকজনকে জামায়াত বিএনপির ক্যাডার দাবি করে আদালতে ষড়যন্ত্রমুলক মামলা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তাদের বিরুদ্ধে ধারালে অস্ত্র দিয়ে হত্যা ও পঙ্গু করার হুমকি দিয়ে চাঁদা দাবির অভিযোগ আনা হয়েছে। যাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে তারা হলেন জেলা আওয়ামীলীগের নেতা ও দুইবার নির্বাচিত চেয়ারম্যান খন্দকার মহব্বত আলী, ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি আবদুর রহমান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক জেলা আওয়ামীলীগের নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল আওয়াল মোল্যার (ইলামদি) পুত্র স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা ব্যবসায়ী শফিকুল ইসলাম শফিকসহ স্থানীয় কতিপয় আওয়ামীলীগ নেতা ও কর্মী।
আওয়ামীলীগ নেতাদের অভিযোগে জানা যায়, গত মঙ্গলবার পলিতা বাজারে পাট ওঠা নামানোকে কেন্দ্র করে চরবাটাজের গ্রামের নুর ইসলাম ও বেরইল খাড়াপাড়ার গোলাম আকবার শেখের মধ্যে কথা কাটাকাটি হাতাহাতি ও মারামারি হয়। এতে উভয়পক্ষের চারজন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। পরবর্তীতে কতিপয় ব্যক্তির মদদে আকবার শেখের বাড়িসহ পাঁচ ছয় জনের বাড়ি ভাংচুর লুটপাটসহ প্রায় ৫০ লাখ টাকার উপরে ক্ষতি সাধন করে। এই লুটপাটের ঘটনাকে আড়াল করতে লুটপাটকারীরা তিনজন আওয়ামীলীগ নেতাকে জামায়াত-বিএনপির ক্যাডার দাবি করে মামলা ঠুকে দেয়া হয়েছে।
ভুক্তভোগী মহল বিষয়টি তদন্তে পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

SHARE