বিসিএমসি’তে বৃত্তি, শ্রেষ্ঠছাত্র পুরস্কার ও শিক্ষা সহায়ক কার্যক্রমের সার্টিফিকেট প্রদান

যশোরের বিসিএমসি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি মহাবিদ্যালয়ে মেধাবী ও ক্লাসে নিয়মিত শিক্ষার্থীদের মাঝে বৃত্তির চেক বিতরণ করা হয়েছে। স্বর্ণপদক, ক্রেস্ট ও চেক প্রদান করা হয়েছে ২০১৮ সালের শ্রেষ্ঠ ছাত্রকে। একই সাথে শিক্ষা সহায়ক ক্লাবের বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে সার্টিফিকেট বিতরণ করা হয়। ২৬ আগস্ট সোমবার বিসিএমসি হল রুমে শিক্ষার্থীদের সাফল্যের এ স্বীকৃতি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিসিএমসি ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী আশরাফুল কবির। সভাপতিত্ব করেন বিসিএমসি অধ্যক্ষ প্রকৌশলী এস এম রেজাউল কবীর। বক্তব্য রাখেন রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. সারাফাত হোসেন, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং এর বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী আইউব আলী। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ২০১২ সালের শ্রেষ্ঠ ছাত্র মোহেল রানা, ২০১৮ সালের শ্রেষ্ঠছাত্র মো. রায়হানুল ইসলাম, কম্পিউটার ৭ম পর্বের শিক্ষার্থী হাবিবা নাসরিন, টেক্সটাইল ৫ম পর্বের আসিফ ইকবাল ও ইলেকট্রিক্যাল ১ম পর্বের নাইমুর রহমান।
অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীর হাতে মাসিক ১ হাজার টাকা হারে মেধাবৃত্তি ও মাসিক ৮শ’ টাকা হারে সাধারণ বৃত্তির চেক প্রদান করা হয়। একই সাথে ২০১৮ সালের শ্রেষ্ঠ ছাত্র টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের রায়হানুল ইসলামকে স্বর্ণপদক, ক্রেস্ট, ১৫ হাজার টাকার চেক ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। এছাড়াও গত ২০ থেকে ২৫ আগস্ট শিক্ষা সহায়ক ক্লাবগুলোর আওতায় অনুষ্ঠিত ক্রীড়া, সংস্কৃতি, ইংরেজি বিতর্ক, উপস্থিত বক্তৃতা, সেমিনার, কোরআন তেলোয়াত, ইসলামী সঙ্গীত, গীতাপাঠ, কম্পিউটার, বিজ্ঞানমেলা, বিদেশি ভাষায় কথাবলা প্রভৃতি প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে সনদ বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে কোরআন তেলাওয়াত করেন বিসিএমসি কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব ও পেশ ইমাম মুফতি মাওলানা মাহবুবুর রহমান। উপস্থাপনা করেন বিসিএমসি সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক ক্লাব সভাপতি সহকারী অধ্যাপক আসাদুজ্জামান। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

শেয়ার