ঈদেও ছুটি নেই নারী ক্রিকেটারদের

সমাজের কথা ডেস্ক॥ দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ভালোই সাফল্য নারী ক্রিকেটারদেরদক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষে মঙ্গলবার দেশে ফিরেছেন নারী ক্রিকেটাররা। তবে ঈদের ছুটি পাচ্ছেন না তারা। ৩১ আগস্ট স্কটল্যান্ডে শুরু হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব। এই টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে বৃহস্পতিবার মিরপুর ক্রিকেট একাডেমিতে শুরু হচ্ছে মেয়েদের প্রস্তুতি ক্যাম্প। ঈদের মধ্যেও একাডেমিতে থাকতে হবে সালমা-রুমানাদের। ইমার্জিং দল নামে খেললেও দক্ষিণ আফ্রিকায় জাতীয় দলের কয়েকজন ক্রিকেটার খেলেছেন। প্রোটিয়াদের মাটিতে মেয়েদের সাফল্য ভালোই। টি-টোয়েন্টি সিরিজে হেরে গেলেও ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে লাল-সবুজ দল। নারী ক্রিকেট দলের মেন্টর নাজমুল আবেদীন ফাহিম জানালেন ব্যস্ত সূচির কথা। মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে তিনি সংবাদ মাধ্যমকে বললেন, ‘আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) থেকে প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু হবে। ক্যাম্প চলার সময়েই ঢাকা মেট্রো অনূর্ধ্ব-১৬ দলের বিপক্ষে দুটো প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে মেয়েরা। এখানে ক্যাম্প শেষে ১৫ আগস্ট নেদারল্যান্ডসের পথে রওনা হবে দল। সেখানে ১০ দিনের আবাসিক ক্যাম্প হবে, পাশাপাশি চারটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবো আমরা।’ এমন ব্যস্ত সূচি নিয়ে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার রুমানা আহমেদের মন্তব্য, ‘আমাদের কাজ হলো ক্রিকেট খেলা। সামনে যেহেতু টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব, তাই পরিশ্রম করতেই হবে। ঈদের ছুটিতেও আমরা প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবো।’ দক্ষিণ আফ্রিকায় মেয়েদের পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট নাজমুল আবেদীন ফাহিম, ‘জাতীয় দলের সাত জন এই সফরে যায়নি। জাতীয় দলের যে ক্রিকেটাররা সব সময় খেলার সুযোগ পায়না অথবা যারা দলে নবাগত বা ফর্মে নেই তাদের আমরা খেলানোর চেষ্টা করেছি। ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি দুটি সিরিজেই মেয়েরা দারুণ লড়াই করেছে। দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে আমরা যথেষ্ট আত্মবিশ্বাস নিয়ে ফিরেছি।’ স্কটল্যান্ডেও সাফল্য ধরা দেবে বলেই তার বিশ্বাস, ‘গত বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে আমরা চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলাম। এবার আমাদের দল আরও শক্তিশালী। বাছাই পর্ব থেকে দুটো দল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করবে। আশা করি, কোয়ালিফাই করতে সমস্যা হবে না। আমাদের মূল লক্ষ্য বিশ্বকাপের জন্য নিজেদের প্রস্তুত করা।’

SHARE