চার কোটি টাকা হাতিয়ে নেয় বিকাশ ডিস্ট্রিবিউটরের বাড়ি-অফিসে তালা

আব্দুল জলিল, সাতক্ষীরা॥ এক হাজার এজেন্টের চার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে অফিসে ও বাড়িতে তালা ঝুলিয়ে গা ঢাকা দিয়েছেন ‘বিকাশ’ এর সাতক্ষীরা জেলা ডিস্ট্রিবিউটর ফারুক হোসেন। এজেন্টরা এর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করে জমা টাকা ফেরত ও ফারুকসহ সংশ্লিষ্টদের গ্রেফতার দাবি করেছেন। এ ঘটনায় সাতক্ষীরা সদর থানায় মামলা হয়েছে ।
মঙ্গলবার সকালে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এসে জেলার এজেন্টরা সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আমরা আজ থেকে সাতক্ষীরায় বিকাশের কার্যক্রম বন্ধ রাখছি। অভিযোগ করে তারা বলেন, সোমবার সকাল থেকে জেলার এজেন্টরা ডিস্ট্রিবিউটরের খোঁজ পাচ্ছেন না। তাদের সব ফোন বন্ধ। তার অফিসে তালা, বাড়িতেও ঝুলছে তালা। সংবাদ সম্মেলনে তারা বলেন, প্রতিদিন আমরা আমাদের বিকাশ ডিস্ট্রিবিউটরের সিমে টাকা দেই। কিন্তু প্রয়োজন মতো টাকা চাইলে তা আর পাই না। এ অবস্থা চলতে থাকায় তাদের ব্যবসা গুটিয়ে যেতে বসেছে। এজেন্টদের অভিযোগ বিকাশ ডিস্ট্রিবিউটর তাদের টাকা হাতিয়ে নিয়ে হুন্ডির কাজে ব্যবহার করছেন। টাকা হাতিয়ে নিয়ে এখন তিনি দুবাইতে পাড়ি দিয়েছেন বলে জানতে পেরেছি। সেখানে তার হোটেল ব্যবসা রয়েছে বলে জানান এজেন্টরা।
তারা অভিযোগ করে আরও বলেন, সোমবার সকালে ডিস্ট্রিবিউটর ফারুক তাদের ফোন করে বেলা ১০ টার মধ্যে টাকা চান। এই টাকা তার সিমে দেওয়ার পর থেকে তার খোঁজ মিলছে না। খবর পেয়ে সাতক্ষীরা সদর থানার এসআই তরিকুল ইসলাম বিকাশ ডিস্ট্রিবিউটরের অফিসে যেয়ে তিনজনকে খুঁজে পান। এরা হলেন কর্মচারী ইব্রাহীম, বিশ^জিত ও মো. মাসুমবিল্লাহ। তাদেরকে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করে জিম্মায় দেওয়া হয়েছে। অপরদিকে সকালে বিকাশ এজেন্ট আকতার হোসেন ডিস্ট্রিবিউটর ফারুক হোসেনসহ সাতজনকে আসামি করে সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি মামলা করেছেন। এই মামলার আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ফারুক সপরিবারে পালিয়ে যাওয়ায় গৃহ নির্মান ঋণদাতা স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক তার বাড়ির গেটে তালা ও নোটিশ ঝুলিয়ে দিয়েছে।
জানতে চাইলে সাতক্ষীরার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মো. ইলতুতমিস বলেন, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তবে ফারুকের বিদেশে পালিয়ে যাবার সম্ভাবনাও রয়েছে।

SHARE