যশোরে পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ পুলিশ সদস্য পরিচয়ে চাঁদাবাজিকালে আটক রাকিবুল হাসান শান্ত ও মামুন হোসেন জনির বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। যশোর শহরের সিটি প্লাজা মার্কেটের ব্যবসায়ী এসএস ফ্যাশনের মালিক শাহ আলম বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে কোতোয়ালি মডেল থানায় এ মামলা দায়ের করেন। তারা পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজির কথা স্বীকার করে বুধবার আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।
বাদী মামলায় উল্লেখ করেছেন, মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে আসামি রাকিবুল হাসান শান্ত তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এসে কর্মচারী আব্দুর রহমানের কাছে ৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। এরপর দোকান মালিকের মোবাইল নম্বর নিয়ে ফোন করেও একইভাবে টাকা দাবি করা হয়। ওই সময় সিটি প্লাজা মার্কেটের অন্য ব্যবসায়ীদের সহায়তায় শান্তকে আটক করা হয়। পরে শান্ত’র স্বীকরোক্তিতে জনিকেও আটক করা হয়। বুধবার তাদের দু’জনকেই আদালতে প্রেরণ করা হয়। এসময় তারা পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজির কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে। এদিনই তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার