চুয়াডাঙ্গায় সন্তানকে গলা কেটে হত্যা করলেন ‘মা’

সমাজের কথা ডেস্ক॥ চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় নিজের সন্তানকে গলাকেটে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক নারীর বিরুদ্ধে, যাকে মানসিক ভারসাম্যহীন বলছে পুলিশ।
সোমবার সকাল ৮টার দিকে উপজলার সোনাতনপুর গ্রামে নিজ বাড়িতে এ ঘটনায় ওই নারীকে আটক করা হয়েছে বলে আলমডাঙ্গা থানার ওসি মুন্সী আসাদুজ্জামান জানান।
আটক শামীমা খাতুন ওরফে সায়মা সোনাতনপুর গ্রামের মামুন অর রশিদের স্ত্রী। তাদের দুই বছরের সন্তানের নাম স্নেহা খাতুন।
ওসি বলেন, শামীমা সকালে বটি দিয়ে তার কন্যা সন্তান স্নেহার গলা কেটে হত্যা করে। পরে প্রতিবেশীদরা থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার এবং শামীমাকে আটক করে।
এ পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, শামীমা মানসিক ভারসাম্যহীন এবং এর আগেও তিনি তার সন্তানকে হত্যার চেষ্টা করেছেন বলে স্থানীয়দের কাছে শুনেছেন। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

SHARE