শার্শা ছাত্রলীগ সম্পাদককে ফাঁসাতে পরিত্যক্ত ভবনে পুলিশের হানা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরের শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আকুল হুসাইনের ছয় মাস ধরে তালাবন্ধ বাড়িতে অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে পুলিশ তালা ভেঙে ওই বাড়িতে ঢোকে। এ সময় ওই বাড়ি থেকে গুলি, ম্যাগজিন, বোমা তৈরির সরঞ্জামসহ বিভিন্ন অস্ত্র উদ্ধার দেখানো হয়েছে।
তবে আকুল হুসাইনের দাবি, গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে থেকেই ওই বাড়িতে কেউ থাকেন না। স্থানীয় সংসদ সদস্যের নির্দেশে তাকে ফাঁসাতেই পুলিশ এই উদ্ধার নাটক সাজিয়েছে।
বেনাপোল পোর্ট থানা ওসি মাসুদুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাতে ওই বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এ সময় ১২টি ম্যাগজিন, তিন রাউন্ড গুলি, বোমা তৈরির সরঞ্জাম, রামদা, চাপাতি ও বেশ কয়েকটি ফেনসিডিলের খালি বোতল উদ্ধার করা হয়েছে।
এক প্রশ্নের জবাবে ওসি বলেন, বাড়িটি আকুলের নিজের নয়, তার মামাদের। আগে তিনি এই বাড়িতে থাকতেন। এখন থাকেন কিনা তা আমার জানা নেই।
জানা যায়, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে গত ২২ ডিসেম্বর আকুলের ওই বাসভবনে হামলা করে সন্ত্রাসীরা। স্থানীয় এক শীর্ষ জনপ্রতিনিধির ছত্রছায়ায় থাকা ক্যাডাররা ওই হামলা চালায়। এরপর থেকেই নিরাপত্তার স্বার্থে যশোর শহরে বসবাস করছেন আকুল হুসাইন। কিন্তু তাকে ফাঁসাতে দীর্ঘদিন ধরে তালাবন্ধ তার বাসভবন থেকে গুলি, ম্যাগজিন ও মাদকের মতো ভয়াবহ অবৈধ পণ্য উদ্ধার দেখিয়েছে পুলিশ। এই ষড়যন্ত্রের পিছনে ওই জনপ্রতিনিধির হাত রয়েছে বলে দাবি আকুল হুসাইনের।

SHARE