প্রেমিকার বিয়ে খবরে এমএম কলেজ ছাত্রের আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ প্রায় সাড়ে সাত বছর ধরে দুজনের প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। কিন্তু সম্প্রতি অন্য ছেলের সাথে মেয়েটির বিয়ে ঠিক করে প্রেমিকার পরিবার। এক পর্যায়ে প্রেমিকাও বিয়েতে মত দেওয়ায় অভিমানে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে প্রেমিক মেহেদি হাসান। ঘরের আড়ার সাথে ফাঁস লাগিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন। শুক্রবার ভোররাতে যশোর শহরের এমএম কলেজ মসজিদ গেট এলাকায় আমজাদ মেসে তিনি আত্মহত্যা করেন।
মেহেদি হাসান যশোর সরকারি মাইকেল মধুসূদন (এমএম) কলেজের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি চৌগাছা উপজেলার সলুয়া এলাকার আজিজুর রহমানের ছেলে।
নিহতের দুলাভাই ইলতুত মিশ জানান, সদর উপজেলার চাঁদপুর এলাকার সোনিয়া নামে এক কলেজ পড়ুয়া ছাত্রীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিলো মেহেদী হাসানের। সম্প্রতি সোনিয়ার অন্য ছেলের সাথে বিয়ে ঠিক হয়। তখন মেহেদি সোনিয়াকে তার সাথে বিয়ের জন্য অনুরোধ জানায়। কিন্তু সোনিয়া বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় অভিমানে তিনি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।
এ বিষয়ে যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি অপূর্ব হাসান জানান, স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

SHARE