চুয়াডাঙ্গায় শাশুড়িকে হত্যায় পুলিশ কনেস্টবল গ্রেপ্তার

সমাজের কথা ডেস্ক॥ চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় শাশুড়িকে হত্যার অভিযোগে এক পুলিশ কনস্টেবলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
বুধবার চুয়াডাঙ্গা-আলমডাঙ্গা সড়কের ঘোড়ামারা ব্রিজ এলাকা থেকে কনস্টেবল অসীম কুমার ভট্টাচার্যকে (৩৬) পুলিশ গ্রেপ্তার করে।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি আবু জিহাদ মোহাম্মদ ফখরুল আলম খান বলেন, গত ৭ জুন রাতে চুয়াডাঙ্গা সিআইডির কনস্টেবল অসীম কুমার ভট্টাচার্য আলমডাঙ্গা শহরের মাদ্রাসাপাড়ায় শ্বশুরবাড়ি গিয়ে স্ত্রী ফাল্গুনি অধিকারীকে (২৮) মারপিট শুরু করেন।
“এ সময় শাশুড়ি শেফালি অধিকারী (৫২), শ্যালক আনন্দ অধিকারী ও শ্বশুর সদানন্দ অধিকারী (৬০) ঠেকাতে গেলে অসীম ছুরিকাঘাতে শাশুড়ি শেফালিকে হত্যা করেন।”
এছাড়া তার ছুরিকাঘাতে স্ত্রী, শ্যালক ও শ্বশুর আহত হন। ঘটনার পর থেকে অসীম পলাতক অবস্থায় ছিলেন বলে ওসি জানান।
ওসি জানান, বুধবার দুপুরে অসীম একটি মোটরসাইকেলে আলমডাঙ্গার দিক থেকে চুয়াডাঙ্গার দিকে আসছিলেন। এ সময় রাস্তায় দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশ তাকে থামায়। অসীমের মাথায় হেলমেট এবং মুখে মুখোশ ছিল।
“ট্রাফিক পুলিশ অসীমের পরিচয় জানতে চাইলে তিনি মোটরসাইকেল থেকে নেমে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন। এ সময় ট্রাফিক পুলিশ সদস্য ধাওয়া করে তাকে আটক করেন।”
পরে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশের হাতে হস্তান্তর করা হয় বলে ওসি জানান।
আটকের পর অসীম তার শ্বাসকস্ট হচ্ছে বললে তাকে বিকালে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে ওসি জানান।

শেয়ার