বেনাপোলে চোরাচালান মামলার দুই আসামি কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ যশোরের বেনাপোলের একটি চোরাচালান মামলার দুই আসামিকে কারাদ- ও অর্থদ- দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার স্পেশাল জজ ( জেলা জজ) আদালতের বিচারক শেখ ফারুক হোসেন এ রায় দেন। দ-প্রাপ্তরা হলো, বগুড়া জেলার শাহাজানপুর থানার চকলোকমান গ্রামের মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে ফরিদুল ইসলাম ওরফে পান্নু এবং যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানা এলাকার ছোট আঁচড়া গ্রামের শামসুল ইসলামের ছেলে রবিউল ইসলাম।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০০৫ সালের ১৩ জুলাই আসামিরা বিভিন্ন ধরনের ভারতীয় চোরাই মালামাল নিয়ে আসছে বলে সংবাদ পেয়ে পুলিশ বেনাপোলের বড়আঁচড়া এলাকায় অভিযান চালায়। চোরাচালানীরা ওই সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে। তাদের ছোঁড়া গুলিতে পেয়ার আলম নামে পুলিশের এক সদস্য পুলিবিদ্ধ হন। এর পাল্টা পুলিশও কয়েক রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে। সেই গুলিতে আসামি রবিউল ইসলাম গুলিবিদ্ধ হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে ১৫ হাজার ৯৭০ টি ভারতীয় ওমিপ্রাজল ক্যাপসুল, ৪৯৯ টি জেন্টা মাইসিন ইনজেকশন, ৫০৫ টি ভারতীয় স্টিল প্লেট এবং ২৩৫ প্যাকেট ভারতীয় ডন তাস উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় সিপাহী বাবর আলী বাদী হয়ে ওই দুইজনসহ আরো ২০ জনের বিরুদ্ধে বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা করেন। স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে ওই দু’আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাদের প্রত্যেককে এক বছরের সশ্রম কারাদ- ও ৫ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দেন। জরিমানার টাকা অনাদায়ে তাদের আরো ৩ মাসের কারাদ-ের আদেশ দিয়েছেন।

SHARE