ইরাক ছাড়তে হবে মার্কিন সেনাদের

সমাজের কথা ডেস্ক॥ ইরাকে মার্কিন সেনা উপস্থিতির ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হতে পারে। এ বিষয়ে ইরাকের পার্লামেন্টে ভোটাভুটি হতে যাচ্ছে। এই বিলটি পাস হলে ইরাক থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নিতে হবে যুক্তরাষ্ট্রকে।
এক খসড়া বিলে বলা হয়েছে, বিদেশি কোনো সেনা ইরাকি ভূখ-ে থাকতে পারবে না। শনিবার ওই বিলের ওপর ভোটাভুটি হওয়ার কথা রয়েছে। এই বিলের বিশেষ উদ্দেশ্য হচ্ছে ইরাক থেকে মার্কিন সেনা সরিয়ে নেয়া।
২০০৩ সালে ইরাকে আগ্রাসন চালায় যুক্তরাষ্ট্র। ওই আগ্রাসনের আগে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা দাবি করেছিল যে, তৎকালীন স্বৈরশাসক সাদ্দামের কাছে গণবিধ্বংসী মারণাস্ত্র আছে এবং তা যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ব্যবহারের পরিকল্পনা করা হচ্ছে।
আগ্রাসনের পর ২০১১ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে যুদ্ধের সমাপ্তি ঘোষণা করে যুক্তরাষ্ট্র এবং ইরাক থেকে সেনা প্রত্যাহার করে। কিন্তু প্রশিক্ষণ ও সামরিক যন্ত্রপাতি পরিচালনার নামে কিছু সেনা ইরাকে রেখে দেয়া হয়।
ইরাকে মার্কিন সেনাদের অবস্থানে বিরুদ্ধে কয়েক বছর ধরেই বহু রাজনীতিবিদ প্রশ্ন তুলে আসছেন যে, বিদেশি সেনা বিশেষ করে মার্কিন সেনা উপস্থিতির প্রয়োজনীয়তা কী? তারা ইরাক থেকে সেনা প্রত্যাহার করার জন্য মার্কিন সরকারের প্রতিও আহ্বান জানিয়েছেন।

শেয়ার