তিউনিসিয়া উপকূলে শরণার্থী নৌকাডুবি, বহু মৃত্যুর আশঙ্কা

সমাজের কথা ডেস্ক॥ ভূমধ্যসাগরে তিউনিসিয়া উপকূলে শরণার্থী বোঝাই একটি নৌকাডুবে বহু মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে।

জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক শরণার্থী বিষয়ক সংগঠন অন্তত ৫০ জনের মৃত্যুর খবর দিয়েছে। শুক্রবারের এ দুর্ঘটনায় ১৬ জন বেঁচে গেছে বলেও জানিয়েছে সংগঠনটি।

ওদিকে, তিউনিসিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম রাজধানী তিউনিসের ৭৪ কিলোমিটার দক্ষিণের সাফাক্স শহরের উপকূলে অন্তত ৭০ জন শরণার্থী ডুবে গেছে বলে জানিয়েছে।

শরণার্থীরা লিবিয়া থেকে যাত্রা করে ইউরোপে পাড়ি দেয়ার চেষ্টা করছিল বলে জানিয়েছে তিউনিসিয়ার কর্মকর্তারা।

ঘটনাস্থল থেকে এ পর্যন্ত মাত্র তিনটি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। নৌবাহিনী বাকিদের সন্ধান করছে।

তিউনিসিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রণালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নৌবাহিনী দুর্ঘটনার কথা শোনামাত্রই একটি জাহাজ পাঠিয়েছে এবং জীবীতদের উদ্ধারকাজ চালানো একটি মাছ ধরা নৌকার সঙ্গে যোগ দিয়েছে। জীবীত ১৬ জনকে নৌবাহিনীর জাহাজে নেওয়া হয়েছে।

নৌকার যাত্রীরা সব সাব-সাহারা আফ্রিকা থেকে এসেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। হাজার হাজার শরণার্থী প্রতিবছরই ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিয়ে ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টা করে।

কিন্তু নৌকার ধারণ ক্ষমতার চেয়ে বেশি মানুষ একসঙ্গে বিপজ্জনক পথে সাগর পাড়ি দিতে গিয়ে দুর্ঘটনায় অনেকেই মারা পড়ে।

জানুয়ারিতে প্রকাশিত একটি জাতিসংঘ প্রতিবেদনের হিসাবমতে, ২০১৮ সালে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিতে গিয়ে প্রতিদিন ৬ জন করে শরণার্থীর মৃত্যু হয়েছে।

শেয়ার