বাঘারপাড়ায় যুবককে কুপিয়ে জখম

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোরের বাঘারপাড়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় হুমায়ুন কাজী (২০) নামে এক যুবক ধারাল অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে। দুর্বৃত্তরা ঘরে থাকা তিন লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে দাবি করা হচ্ছে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাতে সাড়ে ১০টার দিকে বাঘারপাড়া উপজেলার নারকেলবাড়িয়া ইউনিয়নের মালঞ্চি গ্রামে। আহত হুমায়ুন কাজী ওই গ্রামের রেজাউল কাজীর ছেলে। হুমায়ুন বলেন, স্ত্রীকে নিয়ে বাঘারপাড়া থানার পাশে ভাড়া বাড়িতে থাকি। আমার গ্রামের আক্কাসের কাছে ১০ হাজার টাকা পাই। গতকাল রাতে তার কাছে আমি টাকা চাইলে কথা কাটাকাটি হয়। রাতেই স্ত্রী রিমা খাতুনকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে যাই। রাত ১০টার দিকে একই এলাকার আক্কাস, দুখু, সুফিয়ান, সায়েদ, ধলা মিয়াসহ ১০-১২ জন আমাকে কুপিয়ে জখম করে। ঠেকাতে গেলে আমার স্ত্রীকেও মারপিট করা হয়। আহতের বাবা রেজাউল কাজী বলেন, তারা আমার ছেলেকে কুপিয়ে ক্ষ্যান্ত হয়নি। মেঝছেলেকে বিদেশ পাঠানোর জন্য ঘরে রাখা তিন লাখ টাকা ও পুত্রবধূর গলায় থাকা সোনার গহনা লুট করে নিয়েছে। হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার শফিউল্লাহ সুবজ বলেন, তার হাত, পিঠ ও উরুতে জখমের চিহ্ন হয়েছে। তার অবস্থা আশংঙ্কাজনক। বাঘারপাড়া থানার ওসি জসিম উদ্দিন বলেন, এরকম ঘটনা আমার জানা নেই। আমার কাছে কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেব।

শেয়ার