জমি আছে ঘর নাই প্রকল্প শালিখায় ১৫২ জন অসহায় মানুষ ঘর পেয়ে বেজায় খুশি

শালিখা প্রতিনিধি॥ শালিখা উপজেলার গঙ্গারামপুর ইউনিয়নসহ ৭টি ইউনিয়নের ৯৮জন ভিক্ষুকসহ ১৫২ জন অসহায় মানুষের জমি আছে ঘর নাই প্রকল্পের আওতায় ঘর পেয়ে খুব বেজায় খুশি হয়েছেন।
প্রকল্প কমিটির আহবায়ক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমী মজুদারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এক লাখ টাকা ব্যয়ে প্রত্যেককে মানসম্মত ঘর বানিয়ে দেয়া হয়েছে। ইউএনও নিজেই বিশ্বস্ত লোক দিয়ে ঘরের রড সিমেন্টের খুঁটি বানানো, ভাল মানের ইট খরিদ ও উন্নত মানের টিন কেনাসহ সার্বিক কেনাকাটার খোঁজ খবর নেয়ায় ঘরগুলো খুবই মজবুত হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। মধুখালী গ্রামের ভিক্ষুক লাইলি, ছুফি খাতুনসহ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের ঘর পাওয়া বিভিন্ন অসহায় মানুষের সাথে কথা বলে এই তথ্য জানা গেছে। গঙ্গারামপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শেখ ফিরোজ হোসেনসহ অনেকেই জানান, ইউএনও’র আন্তরিকতায় এই প্রথম আমরা ভিক্ষুকদের জন্য মানসম্মত ঘর দিতে পেরেছি। এ ব্যাপারে ইউএনও সুমী মজুমদারের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, অসহায় মানুষ যাতে ভালে ঘরে থাকতে পারে সেজন্য চেষ্টা করেছি। এছাড়া এই ১৫২টা ঘর বাদে আরও ৯০টি ঘরের কাজ প্রক্রিয়াধীন অবস্থায় আছে। আপনারা সহযোগীতা করলে আরও ভালো ভালো কাজ করতে পারবো।

SHARE