‘ক্লিনিক্যাল’ পারফরম্যান্স নিয়মিত চান সাকিব

সমাজের কথা ডেস্ক॥ প্রতিপক্ষকে নাগালের মধ্যে আটকে রেখে অনায়াস জয়। ত্রিদেশীয় সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জয়টির মতো এমন দাপুটে জয় খুব বেশি পায়নি বাংলাদেশ। চোট কাটিয়ে ফেরার ম্যাচে দুর্দান্ত খেলেছেন সাকিব আল হাসান। এখানেই থামতে চান না বাংলাদেশের সহ-অধিনায়ক। নিজের ও দলের এমন পারফরম্যান্স দেখতে চান নিয়মিত।
ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে মঙ্গলবার বোলিংয়ের শেষ ভাগ থেকে শুরু করে ম্যাচের শেষ পর্যন্ত, বাংলাদেশের পারফরম্যান্স ছিল প্রায় নিখুঁত। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটিংয়ের শুরুটা ভালো করেছিল। এরপর বাংলাদেশ ঘুরে দাঁড়ায়। মাঝের সময়টায় আবার নিয়ন্ত্রণ নিয়েছিল ক্যারিবিয়ানরা। সাকিবরা লাগাম কেড়ে নেন আবার। রান তাড়ায় একটুর জন্যও মনে হয়নি হারতে পারে বাংলাদেশ।
“সবাই এটাতে অনেক আত্মবিশ্বাসী থাকবে। ক্লিনিক্যাল পারফরম্যান্স আমরা খুব বেশি একটা করি না। সবাই ভালো খেলেছে। দলের জন্য খুবই ভালো দিক। দলের ক্রিকেটারদের দিকে তাকালেই বোঝা যাবে সবাই কতটা আত্মবিশ্বাসী, অন্তত এখন। প্রথম ম্যাচ হওয়ার আগে অবশ্যই অনেকের মনে সংশয় ছিল, যদি-কিন্তু ছিল। ম্যাচের পর আশা করি সব শেষ।”

সাকিবের নিজের জন্যও এই ম্যাচ ছিল আত্মবিশ্বাস পোক্ত করার ম্যাচ। গত ডিসেম্বরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের পর এই ম্যাচ দিয়েই আবার ফিরলেন বাংলাদেশ দলের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। চোটের কারণে যেতে পারেননি নিউ জিল্যান্ড সফরে। ফেরার ম্যাচে ব্যাটে-বলে-ফিল্ডিংয়ে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ব্যক্তিগতভাবে তৃপ্ত সাকিব। তবে জানেন, একটি ম্যাচেই শেষ নয় সব কিছু।

“অবশ্যই ভালো লাগছে। জাতীয় দলের হয়ে প্রায় ৬ মাস পর ম্যাচ খেললাম। একটু নাভার্সনেস কাজ করতেই পারে। যেহেতু প্র্যাকটিস ম্যাচটি ভালো করেছিলাম, আত্মবিশ্বাস ছিল। এরপরও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ভালো করতে পারা অনেক স্বস্তির ব্যাপার। শুরুটা ভালো হয়েছে। এবার ধারাবাহিকতা ধরে রাখার পালা।”

শেয়ার