মামলা অনিষ্পন্ন দেড় যুগ, বিচারককে হাই কোর্টে তলব

সমাজের কথা ডেস্ক॥ দেড় যুগের বেশি পুরনো একটি হত্যা মামলার বিচার শেষ না হওয়ায় তার ব্যাখ্যা জানতে ঢাকার একটি আদালতের বিচারককে তলব করেছেন হাই কোর্ট।

ঢাকার পঞ্চম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহাম্মদ নুরুল আমিন বিপ্লবকে আগামী ৮ মে মামলাটির নথিসহ আদালতে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দিতে হবে।
বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাই কোর্ট বেঞ্চ সোমবার এ আদেশ দেয়। ওই মামলার আসামি হেমায়েত ওরফে কাজল ওরফে কাননের জামিন আবেদনের শুনানিকালে এ আদেশ দেয় হাই কোর্ট।
জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী আবদুর রশিদ মিয়া বাদশা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারি অ্যাটর্নি জেনারেল ইউসুফ মাহমুদ মোর্শেদ।
সহকারি অ্যাটর্নি জেনারেল পরে সাংবাদিকদের বলেন, ১৯৯৮ সালে ডেমরার হযরত আলী হত্যা মামলায় আসামি হেমায়েত ওরফে কাজল ওরফে কাননের জামিন আবেদনের শুনানির সময় বিষয়টি আদালতের নজরে আসে।
“দীর্ঘদিনেও মামলাটির বিচারকাজ শেষ না হওয়ায় ঢাকার পঞ্চম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারককে তলব করেছেন আদালত। আগামী ৮ মে আদালতে হাজির হতে বলা হয়েছে।”
১৯৯৮ সালের ১৬ মার্চ হযরত আলীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। একই সঙ্গে মাসুদ হোসেন ব্রিটেন নামের আরেক যুবকের দুই হাত কেটে নেওয়া হয়। এই ঘটনায় নিহত হযরত আলীর বাবা শওকত আলী ফকির বাদী হয়ে সাতজনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা আরও ১০-১৫ জনকে আসামি করে ডেমরা থানায় মামলা করেন।

শেয়ার