ছেলেকে হত্যার কথা স্বীকার করে বাবার জবানবন্দি

নিজস্ব প্রতিবেদক॥ যশোর নিজের শিশু সন্তান ইয়াসিনকে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন বাবা ওয়াসিম হোসেন। স্ত্রী ফজিলা বেগমকে তাড়িয়ে ফের বিয়ে করতে তিনি শিশু ছেলেকে হত্যা করেন।
সোমবার অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দেয়া জবানবন্দিতে এ তথ্য জনিয়েছেন তিনি। ওয়াসিম সদর উপজেলার ভেকুটিয়া গ্রামের কারিগরপাড়া গ্রামের মহসিন আলীর ছেলে। আদলতের বিচারক মুহাম্মদ আকরাম হোসেন জবানবন্দি গ্রহণ শেষে তাকে জেলহাজতে প্রেরণের আদেশ দিয়েছেন।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, গত বছরের ২ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টার দিকে ভেকুটিয়া বাজারের কাছে একটি ধানক্ষেতে ইয়াসিনের মরদেহ পাওয়া যায়। ইয়াসিনের মৃত্যু রহস্যজনক বলে সন্দেহ হওয়ায় লাশের সুরতহাল রিপোর্ট শেষে ময়নাতদন্ত করা হয়। ময়না তদন্ত রিপোর্টে ইয়াসিনকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়।
ওই বছরের ১৩ আগস্ট নিহত ইয়াসিনের বাবা ওয়াসিম হোসেন অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি মডেল থানায় হত্যা মামলা করেন। প্রথমে থানা এবং পরে মামলাটি সিআইডি পুলিশ তদন্তের দায়িত্ব পায়। তদন্ত কর্মকর্তা এ হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে মামলার বাদী নিহতের বাবা ওয়াসিম হোসেনকে রোববার আটক করেন। সোমবার ওয়াসিমকে আদালতে সোপর্দ করা হলে নিজের সন্তানকে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন তিনি। জবনিবন্দিতে তিনি জানিয়েছেন, স্ত্রীকে তাড়াতে বন্ধুর পরামর্শে নিজের ছেলেকে হত্যা করেন তিনি।

শেয়ার