সাতক্ষীরায় প্রেস কাউন্সিল চেয়ারম্যান মমতাজউদ্দিন আহমেদ সাংবাদিকতা আইন ও রীতিনীতির মধ্যে থাকতে হবে

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি॥ বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মদ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, সাংবাদিকতা পেশা একটি রীতিনীতির মধ্যে থাকতে হবে। এ ব্যাপারে প্রচলিত আইনের প্রতি সম্মান দেখাতে হবে। তিনি আরও বলেন, অপসাংবাদিকতা পরিহার করে বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার চেতনা ধারণ করতে হবে। এসব কারণে দেশের সাংবাদিকদের নিবন্ধনভূক্ত করার চেষ্টা চলছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।
প্রেস কাউন্সিল চেয়ারম্যান রোববার সাতক্ষীরা সার্কিট হাউসে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। সাংবাদিকরা স্বাধীনতা ভোগ করছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, এর অর্থ এই নয় যে যেকোনো মিথ্যা বিষয়কে সত্য হিসাবে তুলে ধরা। সাংবাদিকের স্বাধীনতা আইন ও সংবিধান দ্বারা নিয়ন্ত্রিত মন্তব্য করে তিনি বলেন, দেশে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের প্রয়োজন রয়েছে নানা কারণে। তবে এই আইনের আওতায় কতকগুলি ধারা সাংবাদিকদের জন্য নিরাপদ নয় এই বিবেচনায় তা সংশোধন করা হবে। তিনি সাংবাদিকদের হলুদ সাংবাদিকতা পরিহারের আহবান জানিয়ে আরও বলেন, আন্ডারগ্রাউন্ড পত্রিকা অনেক সর্বনাশ ডেকে আনছে। এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, অনলাইন পত্রিকা প্রকাশের জন্য সুনির্দিষ্ট নীতিমালা থাকবে। এমনটি হলে লেখাপড়া না জেনে যে কেউ একটি পত্রিকা খুলে সমাজের উপকারের বদলে ক্ষতি করতে পারবে না।
‘সাংবাদিকতায় আইন ও আচরণ বিধি’ বিষয়ক মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল। মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন প্রেস কাউন্সিল সচিব শাহ আলম, জাতীয় প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ সভাপতি মো. ওমর ফারুক, বিএফইউজের নির্বাহী সদস্য খায়রুজ্জামান কামাল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইলতুতমিস, সাতক্ষীরা প্রেসক্লাব সভাপতি অধ্যক্ষ আবু আহমেদ, সাবেক সভাপতি সুভাষ চৌধুরী, সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সাবেক সভাপতি মনিরুল ইসলাম মিনি, প্রথম আলোর কল্যাণ ব্যানার্জি, প্রেসক্লাব সম্পাদক মমতাজ আহমেদ বাপী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জ্বল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক এম কামরুজ্জামান প্রমুখ।

শেয়ার