রায় ঘোষণার পর বাদিকে জীবননাশের হুমকি বাগেরহাটে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টা মামলায় ৮ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা

বাগেরহাট প্রতিনিধি॥ বাগেরহাটে মৎস্য ঘের নিয়ে বিরোধের জেরে সদর উপজেলার ডেমা এলাকায় একই পরিবারের ৪ জনকে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ৮ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছে আদালত। রবিবার (২১ এপ্রিল) বিকাল ৩টায় বাগেরহাট চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক স্বপন কুমার সরকার এ রায় ঘোষণা করেন।
অভিযোগ প্রামানিত হওয়ায় সদর উপজেলার ডেমা গ্রামের ওহাব শেখকে ৫বছর, একই গ্রামের বাচ্চু শেখকে ৩ বছর, জাহিদ তরফদার, রাজু তরফদার, লিটন শেখ ও সোহেল তরফদারকে ২বছর এবং তালেব শেখ ও সাহেব তরফদারকে ৬ মাসের সশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। এছাড়া অভিযোগ প্রামানিত না হওয়ায় এ মামলার ৭ আসামিকে খালাস প্রদান করা হয়।
মামলার বিবরনে জানাযায়, মৎস্য ঘের সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বাগেরহাট সদর উপজেলার ডেমা ইউনিয়নের নাগের ডেমা এলাকায় গত ২০১৪ সালের ১৪ এপ্রিল সোমবার রাত ১০টায় আসামিরা মৎস্য ব্যবসায়ী আঃ হালিম শেখ, তার ভাই আঃ রহিম শেখ ও দুই ছেলে আসাদ শেখ এবং আলামিন শেখকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। এসময় আশপাশের লোকজন তাদের উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে তাদের খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে হালিম শেখ বাদি হয়ে ১৫ জনকে আসামি করে বাগেরহাট মডেল থানায় হত্যা চেষ্টার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ শুনানী শেষে রবিবার আদালত এ মামলার রায় ঘোষণা করেন।
এদিকে আসামিদের বিরুদ্ধে জীবননাশের হুমকির অভিযোগ এনে হালিম শেখ বলেন, তারা সবাই এলাকার প্রভাবশালী ও সন্ত্রাসী প্রকৃতির। এদিন আদালতে রায় ঘোষণার পর কারাগারে নেয়ার পথে ওহাব ও বাচ্চু আমাকে রগ কেটে চোখ উঠিয়ে হত্যার হুমকি দিয়েছে। এরপর থেকে আমিসহ আমার পরিবার নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছি।

শেয়ার