নড়াইলে সৎ বাবার বিরুদ্ধে শিশু ধর্ষণের মামলা

নড়াইল প্রতিনিধি ॥ নড়াইলে সৎ বাবা কর্তৃক শিশু ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। শনিবার (২০ এপ্রিল) বিকেলে ধর্ষিতা শিশুর মা বাদি হয়ে তার স্বামীর বিরুদ্ধে লোহাগড়া থানায় মামলা করেছেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত পালিয়ে গেছেন। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরে লোহাগড়া উপজেলার ছত্রহাজারী গ্রামের এক বাঁশ বাগানে এ ঘটনা ঘটে।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, লোহাগড়া উপজেলার ছত্রহাজারী গ্রামের রোজিনা বেগমের সাথে সদর উপজেলার পলইডাঙ্গা গ্রামের জিকির কাজীর পুত্র পিকুল কাজীর বিয়ে হয়। এ ঘরে তাদের দাম্পত্য জীবনে ৮ বছরের এক শিশু কন্যা ও ৫ বছরের এক পুত্র সন্তান রয়েছে। গত ৫ বছর পূর্বে যৌতুকের কারণে তাদের এই দাম্পত্য জীবনে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটলে ছত্রহাজারী গ্রামের ছায়ফার শেখের পূত্র সুজন শেখের (২৭) সাথে রোজিনার বিয়ে হয়। বর্তমান স্বামীর সাথেই রোজিনা প্রথম পক্ষের পুত্র ও কন্যা সন্তান নিয়ে একসাথে বসবাস করছেন। গত শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে বাবু মোল্যার বাঁশ বাগানে খড়ি জ¦ালানি কুড়াতে গেলে ওঁৎ পেতে থাকা তার পিতৃ পরিচয়ধারী নেশাগ্রস্থ সুজন শিশু কন্যার মুখ গামছা দিয়ে বেঁধে ধর্ষণ করে। পরে বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে অভিযুক্ত সুজন এলাকা ছেলে পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা লোহাগড়া থানার এসআই মিল্টন কুমার দেবদাস বলেন, আসামি গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার